বুদ্ধদেব দাস, মেদিনীপুর: রবিবার সকালে অন্ধ্রপ্রদেশের ভাইজ্যাগের শ্রীকাকুলামের জালাত্রকোটা গ্রামের কাছে একটি সড়ক দুর্ঘটনায় খড়্গপুরের ৩ জন মারা গেলেন। আহত হয়েছেন ৩ জন। নিহত ও আহতরা খড়্গপুর থেকে শনিবার বিশাখাপত্তনমের হিন্দুস্তান শিপইয়ার্ড লিমিটেডের মর্মান্তিক ক্রেন দুর্ঘটনায় মারা যাওয়া এক আত্মীয়ের সৎকারে অংশ নিতে যাচ্ছিলেন। 
একটি এসইউভি গাড়িতে খড়্গপুর থেকে ৬ জন যাচ্ছিলেন অন্ধ্রপ্রদেশে। রবিবার ভোর ৫টার দিকে ভাইজ্যাগের শ্রীকাকুলামের জালাত্রকোটা গ্রামের কাছে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে তঁাদের গাড়িটি। খুবই দ্রুতগতিতে চলছিল গাড়িটি। চালক সম্ভবত ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। একটি দাঁড়িয়ে থাকা পণ্যবাহী ট্রেলারে ধাক্কা মেরে গাড়িটি উল্টে যায়। মৃতেরা হলেন— নোগলাকু নাগমণি (৫০), তিনি ক্রেন দুর্ঘটনায় নিহত একজনের শাশুড়ি। দ্বিতীয়জন নোগালাকু লাবণ্য (২৩), নাগমণির পুত্রবধূ। তৃতীয় জন হলেন গাড়ির চালক দ্বারকানাথ রাউথ (২৫)। শনিবার, বিশাখাপত্তনমের গাঁধীগ্রামের হিন্দুস্তান শিপইয়ার্ড লিমিটেডের ভেতরে একটি ক্রেন ভেঙে ১১ জন মারা যান। নিহত একজনের নাম ভাস্কর রাও, যিনি লিড ইঞ্জিনিয়ার্সে কর্মরত ছিলেন। ভাস্কর রাওয়ের মৃত্যুর খবর খড়্গপুরের নিউ ডেভেলপমেন্ট এলাকায় তাঁর শ্বশুরবাড়ির বাড়িতে পৌঁছোনোর পরে শনিবার সন্ধেয় নোগালাকু পরিবার বিশাখাপত্তনমের উদ্দেশে যাত্রা করেন। নাগমণির বড় ছেলে দিলেশ্বর (লাবণ্যর স্বামী), ছোট ছেলে রাজশেখর এবং নাতি আমানও একই গাড়িতে ছিলেন। তাঁরা গুরুতর আহত হয়েছেন। মাথায় আঘাত লেগেছে। তাঁদের অবস্থা এখন স্থিতিশীল। নাগমণি দক্ষিণ–পূর্ব রেলের কর্মচারী ছিলেন।‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top