আজকালের প্রতিবেদন: মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি নাকি ভারতীয় জনতা পার্টির সদস্য!‌ এমন একটি ছবি বিজেপি ছড়িয়ে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। মুখ্যমন্ত্রীর ছবির পাশে লেখা তাঁর নাম, রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ। শেষে লেখা সদস্যপদ নম্বর ৯৫১২। এতে শুধু মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিই নন, ক্ষুব্ধ তৃণমূলও। এর আগেও বহুবার বিজেপি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো খবর ছড়িয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর বিরুদ্ধে কুৎসা ও অপপ্রচারও হয়েছে। মঙ্গলবার বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর ঘরে বসে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি ওই ছবি দেখিয়ে বলেন, ‘বিজেপি কতটা নীচে নামতে পারে, এতেই তা প্রমাণিত। ফেসবুকে মানুষের মনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে। এটা নিকৃষ্টতম দৃষ্টান্ত। দলের পক্ষ থেকে এর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’‌
হোয়াটস অ্যাপ ও ফেসবুক ব্যাপক ব্যবহার করছে বিজেপি, জানিয়েছেন পার্থ চ্যাটার্জি। তিনি বলেন, ‘সাইবার ক্রাইম বিভাগে আমরা অভিযোগ জানাব। দোষীদের কঠোর শাস্তির দাবি জানাব।’‌ তাঁর অভিযোগ, গোটা নির্বাচনে তৃণমূলের বিরুদ্ধে বিজেপি মিথ্যে প্রচার করল। যেটা সত্য নয়, সেটাকেও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিল। তৃণমূল কখনই এই ধরনের নোংরা রাজনীতি করে না। বিজেপি বাংলার কৃষ্টি ও সংস্কৃতি নষ্ট করতে চাইছে। ধর্ম নিয়ে এখনও রাজনীতি করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, ‘আমরা এই বিষয়টি নিয়ে আইনের পথে যাব।’‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top