আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌নির্বাচনী বিধি ভঙ্গের অভিযোগে তৃণমূল নেত্রীতে নোটিস পাঠাল নির্বাচন কমিশন। সংখ্যালঘু ভোট ভাগ নিয়ে মমতা ব্যানার্জি যে মন্তব্য করেছেন তারকেশ্বরে নির্বাচনী সভায়, তাতে আদর্শ আচরণ বিধি লঙ্ঘিত হয়েছে, বক্তব্য কমিশনের। মমতার থেকে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে জবাব তলব করা হয়েছে। 
গত ৩ এপ্রিল জনসভা থেকে তৃণমূল নেত্রী বলেন, ‘‌বিজেপির কাছ থেকে যারা টাকা নিয়েছে, তাদের কথা শুনে সংখ্যালঘু ভোট ভাগ করবেন না।’‌ মমতার এই মন্তব্যের পরই নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানান বিজেপি নেতা মুখতার আব্বাস। তার পরেই এই পদক্ষেপ করে কমিশন। 
শুধু তাই নয়, কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে মমতা ব্যানার্জি যে মন্তব্য করেছেন, তা নিয়েও রিপোর্ট তলব করেছে কমিশন। আধা সেনার বিরুদ্ধে ‘‌পক্ষপাতদুষ্টতা’‌র অভিযোগ তুলে তৃণমূল নেত্রী পরামর্শ দিয়েছিলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনী গন্ডগোল করলে মহিলারা যেন তাদের ঘেরাও করেন। তার পরই কমিশনের দ্বারস্থ হয় গেরুয়া শিবির। বিজেপির দাবি, মমতা স্পষ্ট ভাবে নির্দেশ দিয়েছেন, একটা দল ঘেরাও করবে। আর অন্য দল ভোট দিতে যাবে। বিজেপি নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার সাংবাদিক বৈঠকে বলেন, সংবিধান বিরোধী মন্তব্য করেছেন মমতা ব্যানার্জি। কমিশনের কাছে তৃণমূল নেত্রীকে ‘‌সেন্সর’ করার দাবি জানিয়েছে ‌বিজেপি। তার পরই কোচবিহারের জেলা শাসক তথা জেলা নির্বাচনী আধিকারিকের কাছে রিপোর্ট তলব করেছে কমিশন। 

জনপ্রিয়

Back To Top