আজকালের প্রতিবেদন- কলকাতা ও জেলার পুজো কমিটিগুলিকে এবার রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। এর জন্য খরচ হবে ২৮ কোটি টাকা। সোমবার নেতাজি ইনডোরে এই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। ইনডোরে এদিন পুজো কমিটিগুলির কর্তারা উপস্থিত ছিলেন। মমতা বলেন, ‘‌কলকাতায় বড়–ছোট মিলিয়ে ৩ হাজার সর্বজনীন পুজো হয়। জেলায় ২৫ হাজার। কাউকেই অবহেলা করা চলবে না।’‌ মমতার ঘোষণা, ১৯ থেকে ২২ অক্টোবর বিসর্জন দেওয়া যাবে। ২৩ অক্টোবর রেড রোডে বিকেল ৪টেয় কার্নিভাল। গতবার ৫৫টি ক্লাব এই কার্নিভালে অংশ নিয়েছিল। এবার বেড়ে হবে ৭৫টি ক্লাব। সিইএসসি গতবার ১০ থেকে ২০ শতাংশ পুজো কমিটিগুলিকে ছাড় দিয়েছিল। এবার ২০ থেকে ৩০ শতাংশ ছাড় পাবে কমিটিগুলি। এ ছাড়া লাইসেন্স ফি মকুব করে দিলেন মুখ্যমন্ত্রী। মমতা বলেন, ‘‌প্রতিবারই বড় পুজো কমিটিগুলি ছোট কমিটিগুলিকে সাহায্য করে। এবারও একইভাবে সাহায্য করবে।’‌ 
মহরম ও বিসর্জন যাতে ঠিকঠাক মতো হয়, তার জন্য পুলিসকে নজর রাখতে বলেছেন মমতা। ইনডোর থেকেই রিমোটে বকখালি ইকো টুরিজিমের উদ্বোধন করেন তিনি। বিজেপিকে কটাক্ষ করে মমতা বলেন, ‘‌এরা শুধু দাঙ্গা বাধাতে চায়, আগুন লাগাতে চায়। বাংলায় এ সব করতে দেব না।’ ইনডোরে এদিন সব ধর্মের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এঁদের মধ্যে অনেকেই মঞ্চে বক্তব্য পেশ করেন। ‌মমতা বলেন, ‘‌বাংলায় সব ধর্মের মানুষ বাস করেন। উৎসব সকলের।’‌ উৎসবে সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি বলেছেন, ‘‌বাজার মন্দা। লোভের কাছে আত্মসমর্পণ করবেন না। ভিক্ষে চাইবার দরকার নেই। কেউ কেউ টাকা দিয়ে পুজো কমিটিগুলিকে কিনতে চাইবে। আপনারা তা হতে দেবেন না।’‌
এদিন মমতার লেখা দুর্গার উদ্দেশে একটি গান মঞ্চে ইন্দ্রনীল সেন পরিবেশন করেন, গানটির সুরও দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। ইন্দ্রনীল বলেন, ‘‌কলকাতার একটি বিখ্যাত পুজো কমিটির জন্য এই গানটি লিখেছেন মুখ্যমন্ত্রী।’‌ মুখ্যমন্ত্রী বক্তব্য পরিবেশন করতে গিয়ে বলেন, ‘‌অরূপ বিশ্বাসের কাজ থাকায় ও আসতে পারেনি। অরূপ বলেছে, ওর পুজোর জন্য একটি গান লিখতে, তাই আমি লিখেছি।’‌ বিজেপিকে আক্রমণ করে মমতা বলেন, ‘‌ফেক নিউজ করছে। কুৎসা করছে, মিথ্যে কথা বলছে। বদনাম করার জন্যই এই ধরনের কাজ করছে বিজেপি।’‌ নগরপাল রাজীব কুমার বলেন, ‘‌মাঝেরহাট ব্রিজের জন্য পুজোয় কোনও অসুবিধে হবে না। এটা আমাদের চ্যালেঞ্জ।’‌‌ বক্তব্য পেশ করেন ডিজি বীরেন্দ্র। ছিলেন সুব্রত মুখার্জি, ফিরহাদ হাকিম, সাধন পান্ডে, শোভন চ্যাটার্জি প্রমুখ।‌‌‌

 

নেতাজি ইনডোরে পুজো কমিটিগুলির সঙ্গে বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী। ছবি: অমিত ধর

জনপ্রিয়

Back To Top