আজকাল ওয়েবডেস্ক: পঞ্চম দফার ভোটের দিন নজিরবিহীন ঘটনার সাক্ষী থাকল চাকদা। রামলাল অ্যাকাডেমি স্কুলের ৪৪ এবং ৪৫ নম্বর বুথে উত্তেজনা ছড়ায়। হঠাৎই বুথের বাইরে নির্দল প্রার্থী কৌশিক ভৌমিককে, সাদা পাঞ্জাবির তলায় একটি বন্দুক নিয়ে দৌড়তে দেখা যায়। আর এই ভয়ঙ্কর দৃশ্যকে কেন্দ্র করেই ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। 

ওই নির্দল প্রার্থী কৌশিক ভৌমিকের দাবি, বুথের বাইরে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা পিস্তল নিয়ে ভয় দেখাচ্ছিল ভোটারদের। তাঁর আরও অভিযোগ, এরপরও কোনও ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ। এরপর কৌশিক ও তাঁর অনুগামীরা নিজেরাই সেই তৃণমূল কর্মীদের তাড়া করেন। সেই সময়ই এক দৃষ্কৃতীর হাত থেকে বন্দুক রাস্তায় পড়ে যায়। এরপর ওই বন্দুকটি পাঞ্জাবিতে জড়িয়ে নিয়ে পুলিশের কাছে নিয়ে আসতে দেখা যায় কৌশিক ভৌমিককে।

তবে তৃণমূলের তরফে অভিযোগ, কৌশিক ভৌমিক বিজেপির অনুচর। তিনিই বন্দুক নিয়ে বুথের বাইরে ভয় দেখাচ্ছিলেন ভোটারদের। সেই সঙ্গে ছাপ্পা দিচ্ছিলেন ওই বুথে। ধরা পড়ে তৃণমূলের নামে দোষ দিচ্ছেন। তৃণমূল প্রার্থী শুভঙ্কর সিং-এর আরও অভিযোগ, কৌশিক একসময় সিপিএম করতেন। তাঁর বাবার নামেও খুনের মামলা আছে। এখন কৌশিক ভৌমিক বিজেপি করেন। গোটা চাকদাই তা জানে। তবে এইবারের ভোটে তাঁকে নির্দল প্রার্থী হিসাবে দাঁড় করিয়েছে বিজেপি। বিজেপির হয়েই তিনি বন্দুক হাতে বুথে বুথে ঘুরে ভোটারদের ভয় দেখাচ্ছেন।  

কৌশিক ভৌমিক নির্দল প্রার্থী হলেও, তিনি এলাকায় বিজেপি কর্মী বলেই পরিচিত। তবে এই কেন্দ্রে বিজেপি বঙ্কিমচন্দ্র ঘোষকে প্রার্থী করেছে। দলের একাংশে তাই নিয়ে ক্ষোভও তৈরি হয়। এরপরই কৌশিক ভৌমিক নির্দল প্রার্থী হয়ে এই আসন‌ থেকে প্রার্থী হন।

Back To Top