আজকাল ওয়েবডেস্ক: করোনা পরিস্থিতিতে গঙ্গাসাগর মেলা ছোট করে করার সিদ্ধান্ত নিল পশ্চিমবঙ্গ সরকার। শুধু তাই নয়, সংক্রমণ রুখতে গড়া হচ্ছে ৮০০ জনের দল। মেলাপ্রাঙ্গণে প্রবেশের আগে আগত পুণ্যার্থীদের প্রত্যেকের র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করা হবে। পুণ্যার্থীরা মাস্ক পরা সহ অন্যান্য মেনে মেলায় ঘোরাঘুরি করছেন কিনা তাও দেখবে এই ৮০০ জনের দল। 
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ‘আমরা এবছর গঙ্গাসাগর মেলাকে ছোট করে এনেছি। করোনা পরিস্থিতিকে নিয়ন্ত্রণে রাখতেই এই ব্যবস্থা। মেলা বন্ধ করিনি কিন্তু মেলার বহরকে ছোট করেছি আমরা।’ মুখ্যমন্ত্রী এও বলেন, গত বছর যেখানে পাঁচ লক্ষের বেশি পুণ্যার্থীর সমাগম হয়েছিল, এবার সেখানে দু’ লক্ষ ছাড়াবে না। ‘পুণ্য অর্জনে কাউকে আসতে নিষেধ করতে পারি না, কিন্তু দায়িত্ব নিয়ে সতর্ক থাকার জন্য ব্যবস্থা করছি,’ বললেন মমতা। 
জানা গেছে, মেলা প্রাঙ্গণে প্রবেশের ১৩টি পথ তৈর করা হচ্ছে। ব্যবস্থা করা হয়েছে ৬০০ কোভিড শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতাল। রয়েছে ছটি পরীক্ষাকেন্দ্র, আটটি সেফ হোম, ১১টি কোয়ারান্টাইন সেন্টার এবং পাঁচটি আইসোলেশন সেন্টার। এ বছর ৮ জানুয়ারি থেকে ১৬ জানুয়ার পর্যন্ত চলবে গঙ্গাসাগরের পুণ্যস্নান। কুম্ভমেলার পর গঙ্গাসাগরই দ্বিতীয় বৃহত্তম পুণ্যস্নানের মেলা।  
 

জনপ্রিয়

Back To Top