‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জনবিরোধী নীতির পাল্টা হাতিয়ার জনদরদী প্রশাসন। ফের সেটাই প্রমাণ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। রাজ্যে পেট্রোল ও ডিজেলের একটাকা করে দাম কমিয়ে দিলেন তিনি। মঙ্গলবার নবান্নে একথা ঘোষণা করেন মমতা। কেন্দ্রের নির্ধারিত পেট্রোল ডিজেলের দামের ওপরে রাজ্যের যে কর থাকে, তার থেকেই এই দাম কমানো হল। বুধবার রাত ১২টার পর থেকে এই নতুন দাম কার্যকর করা হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘‌পেট্রোল–ডিজেলের দাম বাড়ছে বলে সাধারণ মানুষের নাভিশ্বাস উঠেছে। কারণ জ্বালানির দাম বাড়লে সবকিছুর দামই কমে। রাজ্য সরকার তাই পেট্রোল ও ডিজেলের প্রতি লিটারে রাজ্য সরকার ১টাকা করে দাম কমানোর সিদ্ধান্ত নিল। এতে সাধারণ মানুষের সমস্যা কিছুটা হলেও কমবে।’‌ দাম কমানোর সিদ্ধান্ত কতদিন পর্যন্ত কার্যকরী থাকবে, সেটা নিয়ে অবশ্য রাজ্য সরকারের পক্ষে কিছু জানানো হয়নি। কেন্দ্রের বিরুদ্ধে তোপ দেগে মমতা বলেন, 'দেশের মানুষকে দুর্ভোগের মধ্যে ঠেলে দিচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকার। বার বার কেন্দ্রের কাছে শুল্ক কমানোর জন্য দাবি জানিয়েও কোনও লাভ হয়নি। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের মানুষকে সুরাহা দিতেই মাথায় ৪৮ হাজার কোটি টাকা ঋণের বোঝা নিয়েও কর ছাড় দেবে পশ্চিমবঙ্গ সরকার।'  এদিন কলকাতায় পেট্রোলের দাম বাড়ল ১৪ পয়সা। লিটার পিছু পেট্রোলের দাম বেড়ে দাঁড়াল ৮৩ টাকা ৭৫ পয়সা। ডিজেলের দামও বেড়েছে ১৪ পয়সা। মঙ্গলবার লিটার পিছু ৭৫ টাকা ৮২ পয়সায় দাঁড়িয়েছে ডিজেলের দাম। একই অবস্থা দিল্লি–মুম্বইয়ের মতো দেশের অন্যান্য মহানগরীগুলোতেও। দিল্লিতে লিটার পিছু পেট্রোলের দাম ৮০ টাকা ৮৭ পয়সা। মুম্বইয়ে তা প্রায় ৯০ ছুঁইছুঁই। দেশের বাণিজ্যনগরীতে লিটার পিছু পেট্রোলের মূল্য বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৮ টাকা ২৬ পয়সা। 

জনপ্রিয়

Back To Top