আজকালের প্রতিবেদন- বাঘ আটকানোর জন্য উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা লাগোয়া সুন্দরবন এলাকায় বন দপ্তর থেকে নাইলনের নেট লাগানো হত। ‌আমফান ঝড়ে ওই নেটের অধিকাংশই ছিঁড়ে গেছে। যার ফলে স্থানীয় মানুষ বাঘের আতঙ্কে রয়েছেন। বনমন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জি সোমবার অরণ্য ভবনে সোমবার আধিকারিকদের সঙ্গে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠক করেন।  বৈঠকের পর রাজীব বলেন, ‘বন দপ্তরের ১০টি দল সুন্দরবন এলাকায় পাহারা দিতে নেমেছে। কিন্তু পাহারা দেওয়ার ব্যবস্থা স্থায়ী সমাধান নয়। এই নাইলনের নেটই আসল। দ্রুত ওই নেট লাগানোর প্রয়োজন। ৭ দিনের মধ্যে যাতে নেট ফের লাগানো যায়, তার জন্য যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে কাজ চলছে। কিছু এলাকায় কাজ শুরু হয়ে গেছে।’
বন দপ্তর থেকে ক্ষতিগ্রস্তদের শিবিরে গিয়ে ত্রাণ দেওয়া হচ্ছে বলে বনমন্ত্রী জানান। তিনি বলেন, ‘‌এই ঝড়ে সল্টলেকের সেন্ট্রাল পার্ক, বনবিতানের বেশ কিছু ক্ষতি হয়েছে। ১০ দিনের মধ্যে সেগুলো সারিয়ে দেবে বন দপ্তর। দক্ষিণবঙ্গে ঝাড়গ্রাম, মেদিনীপুরের চিড়িয়াখানায় ঝড়ে ক্ষতি হয়েছে। মোট ৬টি চিড়িয়াখানা আছে দক্ষিণবঙ্গে।’‌ ১৫ দিনের মধ্যে এই চিড়িয়াখানাগুলি সংস্কার করে দেওয়া হবে বলে জানান মন্ত্রী। তবে কবে খোলা হবে, তা নিয়ে পরে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
গোটা রাজ্যে গাছ লাগানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বন দপ্তর। প্রস্তুতিও শুরু হয়ে গেছে। বনমন্ত্রী বলেন, ‘কত গাছ নষ্ট হয়েছে, ‌বিডিও–‌দের কাছ থেকে সে–‌ব্যাপারে রিপোর্ট নেওয়া হচ্ছে।’‌ ৫ জুন বিশ্ব পরিবেশ দিবসে হরিশ পার্কে গাছ লাগানো হবে। থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি।

বৈঠকে বনমন্ত্রী রাজীব ব্যানার্জি। ছবি: আজকাল

জনপ্রিয়

Back To Top