যজ্ঞেশ্বর জানা,কোলাঘাট: তঁার অনেক দিনের ইচ্ছা ছিল শিশুদের জন্য কিছু করার। দীর্ঘ প্রচেষ্টার পর সেই ইচ্ছার সার্থক রূপায়ণ সফল হল অবশেষে। পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাটে ৬ নম্বর জাতীয় সড়কের গা–ঘেঁষে চালু হল শুধুমাত্র শিশুদের জন্য অত্যাধুনিক বহুমুখী হাসপাতাল শুশ্রূষা শিশুসেবা নিকেতন। বৃহস্পতিবার জাতীয় শিশু দিবসের দিন দক্ষিণবঙ্গের শ্রেষ্ঠতম এই হাসপাতাল শিশুদের উৎসর্গ করলেন প্রখ্যাত শিশু বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক প্রবীর ভৌমিক। 
চারতল বিশিষ্ট চল্লিশ শয্যার এই শিশু হাসপাতালটি পরিষেবার দিক থেকে দক্ষিণবঙ্গের এক নম্বর হাসপাতাল বলেই দাবি করেছেন চিকিৎসক ভৌমিক। তাঁর মতে, শিশুদের হৃদরোগ, ফুসফুসের সমস্যা ও কিডনি সংক্রান্ত সমস্যার পাশাপাশি গ্রামীণ বাংলার জড়বুদ্ধি ও বিকলাঙ্গ শিশুদের চিকিৎসায় এই হাসপাতাল নজিরবিহীন পরিষেবার জন্য তৈরি হয়েছে। এখানে লেবেল থ্রি এন, আইসিইউ, পিআইসিইউ পরিষেবার পাশাপাশি থাকছেন আন্তর্জাতিক মানের চিকিৎসকেরা। আর এই হাসপাতালের মূল পরিষেবার ২০ শতাংশই সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেওয়া হবে দরিদ্র পরিবারের শিশুদের। শুধু কথায় নয়, উদ্বোধনেও এদিন অগ্রাধিকার দেওয়া হয়েছে অনাথ শিশুদের। তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে হেল্‌থ কার্ড। এই কার্ডের বিনিময়ে যতদিন তারা শিশু থাকবে ততদিনই তারা বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা পাবে বলে জানান চিকিৎসক প্রবীর ভৌমিক। এই হাসপাতালের আরও অনেক বৈশিষ্ট্যের মধ্যে থাকছে স্পিচ থেরাপি। যে সমস্ত শিশু অনেক বয়স অবধি কথা বলতে পারে না কিংবা কথা বলতে সমস্যা হয় সেই শিশুদের জন্য বিশেষ চিকিৎসা ব্যবস্থায় থাকবেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। কারা কারা থাকছেন বিভিন্ন পরিষেবায় জানাতে গিয়ে চিকিৎসক প্রবীর ভৌমিক বলেন, ‘‌শিশু হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ বিশ্বজিৎ ব্যানার্জি, শিশু কিডনি বিশেষজ্ঞ দীপঙ্কর গুপ্ত, শিশু স্নায়ুবিদ দীপঙ্কর গুপ্ত, ফুসফুসের চিকিৎসক ইন্দ্রনীল হালদার–সহ আরও অনেক চিকিৎসক। এদিন হাসপাতালের উদ্বোধনে বিশিষ্টদের সঙ্গে আমন্ত্রিত ছিল খেজুরির একটি অনাথ আশ্রমের শিশুরা।

অনাথ শিশুদের সঙ্গে চিকিৎসক প্রবীর ভৌমিক। ছবি: প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top