আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আর কয়েক ঘন্টা। তার মধ্যেই রাজ্যে আছড়ে পড়তে চলেছে বুলবুল। ক্রমশই পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশ উপকূলের দিকে ধেয়ে আসছে। তার জেরেরই শুক্রবার রাত থেকে কলকাতা শহরতলি ও রাজ্যের উপকূলবর্তী জেলাগুলিতে শুরু হয়ে গিয়েছে বৃষ্টি। শনিবার ও রবিবার উপকূলের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সেই সঙ্গে শহরে ৬০–৭০ কিলোমিটার বেগে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া দপ্তর। প্রাথমিকভাবে খবর মিলেছিল, শনিবার মধ্যরাতেই এরাজ্যের বুকে আছড়ে পড়বে বুলবুল। কিন্তু শনিবার সকালে আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, যেভাবে শক্তি বাড়িয়ে এ রাজ্যের দিকে এগোচ্ছে তাতে মধ্যরাতের আগেই সন্ধ্যের মধ্যে আছড়ে পড়তে পারে। গতকাল দুপুরে বুলবুল অতিপ্রবল আকার ধারণ করে। মধ্য বঙ্গোপসাগরে তখন ঝড়ের গতি ঘণ্টায় ১৫৫ কিলোমিটার। রাতে তা বেড়ে ১৭৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায় হয়। মৌসম ভবন জানিয়েছে, বুলবুল এখন উত্তরমুখী হয়ে এগোচ্ছে। শনিবার সকালে তা প্রবল ঘূর্ণিঝড়ে পরিণত হতে পারে। তখনই সেটি বাঁক নিয়ে উত্তর পশ্চিমমুখী হয়ে এরাজ্যের উপকূলের কাছাকাছি চলে আসবে। স্বাভাবিকভাবেই সেইসময় থেকেই বৃষ্টি এবং ঝড়ের গতি আরও বেশি করে অনুভব করা যাবে। 
শনিবার সকাল থেকেই আকাশ মেঘলা এবং হাওয়া সহ হালকা বৃষ্টি শুরু হয়ে গিয়েছে শহরে। দুই ২৪ পরগনা ও পূর্ব মেদিনীপুরে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। ভারী বৃষ্টি হতে পারে পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া ও হুগলিতে। ‌‌
ছবি– তপন মুখার্জি

জনপ্রিয়

Back To Top