আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নতুন থানা উদ্বোধনের দিন দফায় দফায় গুলি, বোমাবাজিতে ফের রণক্ষেত্র উত্তর ২৪ পরগনার ভাটপাড়ায় এপর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে দুজনের। গুরুতর জখম আরও পাঁচজন। জখমদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিএন বসু হাসপাতালেই এক যুবকের মৃত্যু হয়। পরে মারা যায় আরেকজন। মৃতদের নাম রামবাবু সাউ এবং ধরমবীর সাউ। বাকিদের অনেকের অবস্থাই আশঙ্কাজনক হওয়ায় মৃতের সংখ্যা বাড়ার আশঙ্কা। এলাকায় রয়েছে বিশাল পুলিসবাহিনী, র‌্যাফ, স্ট্র‌্যাকো এবং কমব্যাট ফোর্স। ভাটপাড়া এবং জগদ্দলে জারি রয়েছে ১৪৪ ধারা।‌‌‌
থমথমে এলাকায় সব দোকানপাট বন্ধ। আতঙ্কিত স্থানীয় মানুষরা অন্যত্র পালিয়ে গিয়েছেন। তাঁদের অভিযোগ, গত চার–পাঁচ দিন ধরেই দুষ্কৃতীদের দৌরাত্ম্য বাড়ছিল ভাটপাড়া–কাঁকিনাড়া অঞ্চলে। বৃহস্পতিবার সকালে তা চরম রূপ নেয়। চার এবং পাঁচ নম্বর রেল সাইডিং–এ দুই দুষ্কৃতী দলের মধ্যে বোমাবাজি শুরু হয়। চলে গুলি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাঁদানে গ্যাসের শেল ফাটায় পুলিস। শূন্যে গুলি ছোড়ে। কাঁকিনাড়ায় রাস্তার উপর থেকে তাজা বোমা উদ্ধার হয়েছে। মৃতের আত্মীয়রা পুলিসের গুলিতেই মৃত্যু বলে দাবি করলেও পুলিস বলেছে তদন্তের পরই কে গুলি চালিয়েছিল বোঝা যাবে।   
এদিনই জগদ্দল থানা ভেঙে ভাটপাড়া থানা তৈরি হওয়ার কথা ছিল। উদ্বোধন কর্মসূচিতে যোগ দিতে গিয়েছিলেন রাজ্য পুলিসের ডিজি সহ উচ্চপদস্থ কর্তারা। কিন্তু ঘটনার জেরে থানা উদ্বোধন কর্মসূচি স্থগিত হয়ে যায়। মাঝপথ থেকেই ফিরে যান ডিজি। পরে অবশ্য ভাটপাড়ায় যান তিনি। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top