অমিতকুমার ঘোষ,কৃষ্ণনগর: নরেন্দ্র মোদিকে প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রীর প্যাড ছাপিয়ে রাখতে বললেন তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি অভিষেক ব্যানার্জি। বুধবার নদিয়ার এক সভায় মোদির বিরুদ্ধে রীতিমতো আক্রমণাত্মক ছিলেন তিনি। মোদির নেতৃত্বে বিজেপি দেশের সমস্যাই বাড়িয়েছে বলে উল্লেখ করে তিনি জানান, কোনও সমস্যারই সুরাহা তারা করতে পারেনি। ভোটের ফল ঘোষণার দিন নরেন্দ্র মোদি ইস্তফা দিতে যাবেন বলে তিনি দাবি করেছেন।
বুধবার নদিয়ার নবদ্বীপে চটির মাঠে তৃণমূলের রানাঘাট কেন্দ্রের প্রার্থী রুপালি বিশ্বাসের সমর্থনে এক সভায় তিনি ছাড়াও মন্ত্রী উজ্জ্বল বিশ্বাস, রত্না ঘোষ, দলের জেলা সভাপতি গৌরীশঙ্কর দত্ত, নদিয়া জেলা পরিষদের সভাধিপতি রিক্তা কুণ্ডু, নবদ্বীপ পুরসভার চেয়ারম্যান বিমানকৃষ্ণ  সাহা–সহ অনেকেই বক্তব্য পেশ করেন। এদিন অভিষেক আরএসএস–সিপিএম অঁাতাত নিয়েও সরব হন। তঁার বক্তব্য, ‌‘‌২৩ মে–র পর সারা ভারত তৃণমূলময় হয়ে যাবে। একদিকে ভোট গণনা চলবে, আর অন্যদিকে নরেন্দ্র মোদি পদত্যাগ করতে যাবেন।’‌‌
এই সভায় তিনি বলেন, ‘‌এবার সময় এসেছে দেশের এই চৌকিদার আর রাখবেন কিনা তার সিদ্ধান্ত নেওয়ার। এই চৌকিদার রাখলে জুন মাস থেকেই আবার রান্নার গ্যাস, পেট্রোল, ডিজেলের দাম বাড়তে শুরু করবে। নীরব মোদি, মেহুল চোকসিেদর মতো ঘটনা ঘটবে। এই দলটি ক্ষমতায় থাকলে দেশের কোনও উন্নয়ন হবে না। এরা কোনও কথা রাখে না। পঁাচ বছর আগে অনেক প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল। কালো টাকা বিদেশ থেকে দেশে ফিরিয়ে এনে দেশের মানুষের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা জমা করে দেবে বলেছিল। দুই কোটি বেকারের চাকরি দেবে বলেছিল। কিন্তু কোনও প্রতিশ্রুতিই তারা পালন করেনি।’‌
এর পরই তিনি তুলনা টেনে উল্লেখ করেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির কথা। বলেন, ‘‌মমতা ব্যানার্জি যে কথা দেন, তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করেন। এতদিন ক্ষমতায় থেকেও টালির ঘরে থাকেন তিনি। সেখান থেকে ১০ কোটি মানুষের উন্নয়নের কাজ পরিচালনা করেছেন তিনি। অন্যদিকে বিজেপি কোনও কথাই রাখে না। তাই আজ জনগণকেই সিদ্ধান্তটা নিতে হবে।’‌

জনপ্রিয়

Back To Top