আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‌আমফান ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে রাজ্যে ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার নবান্নে বৈঠকে মৃতদের আর্থিক সাহায্যের ঘোষণা করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি। বৈঠকের পর মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‌ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে বহু এলাকা বিদ্যুৎ–বিচ্ছিন্ন। মৃতদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক সাহায্য করবে রাজ্য সরকার। বহু এলাকায় এখনও টেলি যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন।’‌ পাশাপাশি ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে যাওয়ার কথাও বলেন মুখ্যমন্ত্রী। জানান, ‘‌দেখেশুনে টাকা খরচ করতে হবে। করোনার জন্য ২০০ কোটির তহবিল করেছিলাম। করোনার জন্য যা তহবিল হয়েছিল, তারও বেশি খরচ। ক্ষতিপূরণে রাজ্যকে সাহায্য করুক কেন্দ্রীয় সরকার। ছোট ছোট জায়গায় আগে কাজ করতে হবে। দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করে রাস্তার কাজ করতে হবে।’‌ কৃষি–উদ্যান পালনে কত ক্ষতি হয়েছে, সাতদিনের মধ্যে তার রিপোর্ট চাইলেন মুখ্যমন্ত্রী।
তিনি বলেন, ‘মেরামতির কাজে ১০০দিনের কাজকে যুক্ত করতে হবে। কোনওভাবেই অকারণে টাকা খরচ করা যাবে না। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আমাকে ফোন করেছিলেন। প্রধানমন্ত্রীকে বলব ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করুন। উত্তর–দক্ষিণ পরগনায় খাওয়ার জল নেই। সারানো রাস্তা যেন ৩ বছর স্থায়ী হয়, এটা দেখতে হবে। অতি দ্রুত বাঁধগুলো মেরামত করতে হবে। ঘূর্ণিঝড় আমফানের তাণ্ডবে রাজ্যে ৭২ জনের মৃত্যু। এর মধ্যে কলকাতায় ১৫ জনের মৃত্যু। হাওড়ায় ৭, উঃ ২৪ পরগনায় ১৭, পূর্ব মেদিনীপুরে ৬, চন্দননগরে ২, বারুইপুরে ৬, ডায়মন্ড হারবারে ৮, ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে রানাঘাটে ৬, সুন্দরবনে ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। আমফানের ক্ষয়ক্ষতি সামলাতে হাজার কোটির তহবিল। আবহাওয়ার উন্নতি হলে দুই ২৪ পরগনা পরিদর্শন করব।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top