আজকালের প্রতিবেদন: গোলের পর ব্যারেটোকে জড়িয়ে ধরে সেলিব্রেশন। লালমপুঁইয়ার ফেসবুক ওয়ালে এই ছবিটার নীচে লেখা, ‘বন্ধ‍ু চল বলটা দে, রাখব হাত তোর কঁাধে, গল্পেরা এই ঘাসে, তোর টিমে তোর পাশে…’। বন্ধু ব্যারেটোর পাশে খেলে মোহনবাগান মাঠে দু’জনে ফুল ফুটিয়েছেন। দু’জনের অনেক বছর পর দেখা হল সেই মোহনবাগান মাঠেই।
বৃহস্পতিবার সকালে প্রথমে লালমকে দেখে চিনতেই পারেননি সবুজ তোতা। আইজলের ফুটবলার বেশ মোটা হয়ে গিয়েছেন। বেশ কিছুক্ষণ পর চিনতে পেরেই লালমকে বুকে টেনে নেন ব্যারেটো। সাইড লাইনে দাঁড়িয়ে দু’জনে গল্পে মাতেন। লালম বললেন, ‘প্রথমে ও আমাকে চিনতেই পারেনি। অনেকদিন পর দেখা হল। আমার ভুঁড়িটা এত বেড়ে গেছে কেন জিজ্ঞাসা করল। বড়মাপের ফুটবলার ছিল। অনেক কিছু শিখেছি ওর থেকে।’ পুরনো সতীর্থের সঙ্গে দেখা হয়ে খুশি ব্যারেটোও। বললেন, ‘এটাই কলকাতা। অনেকের সঙ্গে দেখা হয়ে যায়। লালম প্রতিভাবান ফুটবলার ছিল। চাইলে আরও অনেক বছর দাপট নিয়ে খেলতে পারত।’ লালমও কোচিং লাইসেন্স করছেন। মূলত কলকাতাতেই থাকেন।

 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top