আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ প্রয়াত প্রাক্তন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। শনিবার দুপুর ১২.‌০৭ মিনিট নাগাদ তিনি দিল্লির এইমসে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ৯ আগস্ট থেকে তিনি এইমসে ভর্তি ছিলেন। বিশিষ্ট চিকিৎসকদের দল তাঁকে পর্যবেক্ষণে রেখেছিল। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৬ বছর। তাঁর মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন রাজনৈতিক মহলের বিশিষ্টরা। শোকস্তব্ধ বলিউড, ক্রীড়াজগৎ। 
দিল্লিতে জন্ম জেটলির। বিভিন্ন কেন্দ্রীয় মন্ত্রক সামলেছেন দক্ষতার সঙ্গে। বিসিসিআইয়ের সহ–সভাপতি ছিলেন। দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার সভাপতিও ছিলেন অরুণ জেটলি।। ভারতীয় দলের দুই প্রাক্তন ক্রিকেটার বীরেন্দ্র শেহবাগ ও গৌতম গম্ভীরও ছিলেন টিম ইন্ডিয়ায় দিল্লির প্রতিনিধি। জেটলির মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন দু’‌জনেই। শেহবাগ তো জেটলি সম্পর্কে অজানা একটি তথ্য শনিবার প্রকাশ্যে এনেছেন। বীরু বলেছেন, ‘‌অরুণ জেটলি জির মৃত্যুতে গভীরভাবে শোকাহত। সফল রাজনীতিবিদ। একই সঙ্গে দিল্লির ক্রিকেটারদের জাতীয় দলে সুযোগ করে দেওয়ার ব্যাপারে জেটলির ভূমিকা কখনও ভোলা যাবে না। একসময় দিল্লির ক্রিকেটারদের ভারতীয় ক্রিকেট দলে বড় একটা দেখা যেত না। কিন্তু অরুণ জেটলি দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার দায়িত্বে আসার পর দিল্লির অনেক ক্রিকেটার টিম ইন্ডিয়ার প্রতিনিধিত্ব করার সুযোগ পেয়েছিল। যার মধ্যে আমি একজন। তিনি মন দিয়ে ক্রিকেটারদের কথা শুনতেন। সমস্যার সমাধান করতেন। ব্যক্তিগতভাবে আমার সঙ্গে খুব ভাল সম্পর্ক ছিল। অরুণ জেটলির পরিবারের জন্য রইল গভীর সমবেদনা।’‌ আরেক প্রাক্তন ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর আবার অরুণ জেটলিকে ‘‌পিতৃপ্রতীম’‌ বলে সম্বোধন করেছেন। গম্ভীর বলেছেন, ‘‌বাবা কথা বলতে শেখায়। কিন্তু পিতৃপ্রতীম শেখায় কীভাবে কথা বলতে হয়। একবার বাবা হাঁটতে শেখায়। আর পিতৃপ্রতীম শেখায় কীভাবে এগিয়ে যেতে হয়। একজন বাবা নামকরণ করেন। কিন্তু পিতৃপ্রতীম আপনার সঠিক পরিচয় তুলে ধরেন। আমার জীবনের একটা অংশ পিতৃপ্রতীম অরুণ জেটলি জি। যেখানেই থাকুন। ভাল থাকুন স্যর।’‌ 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top