আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ তাঁর মন্তব্য নিয়ে তোলপাড় গোটা দেশ। বিতর্কের মুখে সাফাই দিলেন বিরাট কোহলি। টুইটারে লিখলেন, ব্যক্তিগত পছন্দের স্বাধীনতার পক্ষেই তিনি। তাঁর মন্তব্য হালকা চালে নেওয়ার অনুরোধও করেন ভারত অধিনায়ক। 
এক ক্রিকেটভক্তকে দেশ ছেড়ে যাওয়ার কথা বলেন বিরাট। তারপরই সোশ্যাল সাইটে সমালোচনার ঝড় বয়ে যায়। তীব্র সমালোচনার মুখে সাফাই দিলেন অধিনায়ক কোহলি। তিনি টুইট করে বলেছেন, ‘আশা করি, এই ট্রোল আমাকে উদ্দেশ্য করে নয়!‌ আর সত্যি বলতে কী, ট্রোলে আমার কিছু যায়ও আসে না। ‘‌দিজ ইন্ডিয়ান্স’‌, কমেন্টে এই দুটো শব্দ যেভাবে ব্যবহার হয়েছিল, আমি তা নিয়ে বক্তব্য রেখেছিলাম। ব্যস। আমি পছন্দের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। তাই ব্যাপারটাকে লঘু করে দেখাই ভাল। উৎসবের এই মরশুম, সবাই উপভোগ করুন। ভালবাসা আর শান্তি সবার জন্য কামনা করি।’‌ 
বুধবার এক ক্রিকেটপ্রেমীর নেতিবাচক মন্তব্যের জবাব দিতে গিয়ে মেজাজ হারান কোহলি। ওই ভক্ত লিখেছিলেন, ‘‌বিরাটের ব্যাটিং অতিরিক্ত প্রশংসিত। তাঁর ব্যাটিংয়ে তেমন বিশেষত্ব নেই। এই ধরণের ব্যাটসম্যানদের চেয়ে ইংল্যান্ড–অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং দেখতে ভাল লাগে আমার।’‌ ওই ক্রিকেটপ্রমীর এরকম মন্তব্য পড়ার পর ক্ষুব্ধ হন বিরাট। বলেন, ‘‌আমার মনে হয় আপনার অন্য কোনও দেশে গিয়ে থাকা উচিত। আপনি এই দেশে বসবাস করবেন আর অন্য দেশকে ভালবাসবেন! আমি আমাকে পছন্দ নাই করতে পারেন। তাতে আমার বিন্দুমাত্র আপত্তি নেই। কিন্তু আমার মনে হয় আপনার এই দেশ থেকে বেরিয়ে অন্য কোথাও গিয়ে থাকা উচিত। আপনি সবার আগে নিজের অগ্রাধিকার ঠিক করুন।’‌ এরপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় বিরাটের মন্তব্য নিয়ে ঝড় ওঠে। তারপরই সাফাই দিলেন ভারত অধিনায়ক। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top