দেবাশিস দত্ত: ১৪ জুলাই লর্ডসে বিশ্বকাপ ফাইনালে নিউজিল্যান্ড‌–ইংল্যান্ডের লড়াইয়ের সময় অস্ট্রেলিয়ায় নিজের বাড়িতে গভীর নিদ্রামগ্ন ছিলেন আইসিসি–র বিচারে ৫ বার বর্ষসেরা আম্পায়ার সাইমন টাফেল। পরদিন সকালে আইসিসি এবং ফাইনালের দুই আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা এবং এরায়াস মাথাসকে একহাত নেন তিনি। টাফেল জানিয়েছিলেন, মার্টিন গাপটিলের ছোড়া বল বেন স্টোকসের ব্যাটে লেগে বাউন্ডারিতে যাওয়ায় ৪ রান দেওয়া উচিত হয়নি ইংল্যান্ডকে।
নিজের বই উদ্বোধনের কাজে চেন্নাই থেকে মুম্বই যাওয়ার ফঁাকে টাফেল বললেন, ‘‌ঘুম ভেঙে দেখলাম, আমাদের দেশের সব সংবাদপত্রে আম্পায়ারিংয়ের সমালোচনা। কিন্তু কোনও যুক্তিনির্ভর বক্তব্য নেই। ফাইনালের ভিডিও রেকর্ডিং দেখে মনে হল, সাধারণ ক্রিকেটপ্রেমীদের আসল নিয়মটা জানানো উচিত। কারও সমালোচনা করতে চাইনি। কিন্তু ভুল ধারণাটা ভেঙে দেওয়ার প্রয়োজনে জানিয়েছিলাম, ওই ৪ রান দেওয়া উচিত হয়নি। সঙ্গে ব্যাখ্যা। মনে হয় গোটা বিশ্ব আমার যুক্তি–বক্তব্য মেনে নিয়েছিল।’‌ 
আরও জানালেন, পরে মাথায়াসের সঙ্গে তাঁর কথা হলেও ধর্মসেনার সঙ্গে হয়নি। টাফেলের মতে, ফাইনালে অনেকগুলো ভুল সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। উডের বলে রস টেলরকে এলবিডব্লু দেওয়া নিয়ে তাঁর মন্তব্য, ‘‌ওটা ভুল। বল উইকেটের অনেক ওপর দিয়ে যাচ্ছিল। কিন্তু সেটা নিয়ে কেউ কিছু বলেনি। কে বলতে পারে, ওই সময়  টেলরকে আউট না দিলে নিউজিল্যান্ড সরাসরি ম্যাচ জিততেও পারত। টেলর থিতু হওয়ার চেষ্টার মধ্যেই ৩১ বলে ১৫ রান করে ফিরে যেতে বাধ্য হল। এত সহজে এটা বলতে পারছি কারণ, ফাইনালের শেষপ্রহরে বিতর্ক নিয়ে মন্তব্য করার আগে অসংখ্যবার ভিডিওয় ওই মুহূর্তগুলো দেখেছিলাম।’‌‌‌ 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top