সংবাদ সংস্থা, বেঙ্গালুরু: অতিমারীর কবলে গোটা বিশ্ব। মার্চ থেকে এদেশে বন্ধ সব ধরনের ক্রিকেট প্রতিযোগিতা। কিন্তু রাহুল দ্রাবিড়ের মতে, সামনে আরও কঠিন সময় আসছে। ভারতীয় ক্রিকেটে অতিমারীর প্রভাব সবচেয়ে বেশি বোঝা যাবে অক্টোবরে। 
কেন?‌ ভারতীয় ক্রিকেটের ‘‌দ্য ওয়াল’‌ বলেছেন, ‘‌আমরা লাকি। আমাদের দেশে মার্চে করোনার প্রভাব শুরু হয়েছে। ততদিনে বিসিসিআইয়ের ঘরোয়া মরশুম প্রায় শেষ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু অক্টোবর থেকে পরিস্থিতি মাথাব্যথার কারণ হবে। ওই সময় থেকেই আমাদের ঘরোয়া মরশুম শুরু। অনূর্ধ্ব ১৬, অনূর্ধ্ব ১৯, মহিলাদের ক্রিকেট প্রতিযোগিতা শুরু হবে। তখনও যদি পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হয়, করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে না আসে তাহলে আমাদের ঘরোয়া এবং তৃণমূল স্তরের ক্রিকেটে এর প্রভাব ভয়ঙ্করভাবে পড়বে। অনূর্ধ্ব ১৯ পর্যায়ে এটাই যাদের শেষ বছর তাদের কাছে এই বছরটা অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ, একজন ২৩–২৪ বছরের প্লেয়ারের তুলনায়।’‌ 
বায়ো–সিকিওর প্রোটোকল মেনে ইংল্যান্ড–ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ হয়েছে। ঘরোয়া ক্রিকেটে সেটা সম্ভব?‌ ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক বলেছেন, ‘‌‌ইংল্যান্ড–ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট সিরিজ যেভাবে বায়ো–বাবলে হয়েছে তা প্রশংসনীয়। তবে দু’‌মাসের বেশি সময় বায়ো–বাবলে থাকাটা কঠিন মনে হয়েছে জেসন হোল্ডারের। আমার চিন্তা অন্য জায়গায়। ঘরোয়া ক্রিকেটে কি বায়ো–বাবল পরিবেশ আদৌ তৈরি করা যাবে?‌’‌ 
অতিমারী পরিস্থিতিতেও কেন আইপিএল করতে এতটা মরিয়া ভারতীয় বোর্ড?‌ মোটা টাকার অঙ্কই কি একমাত্র কারণ?‌ দ্রাবিড় ব্যাখ্যা দিয়েছেন, ‘‌আইপিএলের মতো টুর্নামেন্ট বায়ো–সিকিওর প্রোটোকল মেনে করা সম্ভব। ঠিক যেভাবে ইপিএল, বুন্দেশলিগা, ইংল্যান্ড–ওয়েস্ট ইন্ডিজ টেস্ট হয়েছে। সব কিছুর পেছনেই একটা কারণ বা যুক্তি থাকে। স্বীকার করতেই হবে আইপিএল থেকে প্রচুর টাকা পাওয়া যায়। লভ্যাংশের সেই টাকা অনূর্ধ্ব ১৯, অনূর্ধ্ব ১৬ প্রতিযোগিতায় খরচ করা হয়। আর কোনও ঘরোয়া প্রতিযোগিতা থেকে এত টাকা লাভ হয় না। যদি তরুণ প্লেয়ারদের খেলার সুযোগ দিতে হয়, তাদের প্রতিভার বিকাশ ঘটাতে হয় তাহলে কোনও না কোনও জায়গা থেকে টাকা আনতে হবে। টাকা রোজগারের জন্য ভারতীয় বোর্ড আইপিএল করছে, বলা সহজ। কিন্তু এখানকার লভ্যাংশই যে ঘরোয়া ক্রিকেটে খরচ হয় সেটা কি অস্বীকার করা যাবে?‌ তাই আইপিএল আয়োজনের এত ব্যস্ততা। না হলে শুধু টুর্নামেন্টের ক্ষতি, মোটা টাকা পাওয়া যাবে না— এমনটা নয়। এর প্রভাব গভীরে গিয়ে পড়বে।’‌ ‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top