আজকালের প্রতিবেদন: টেরিটোরিয়াল আর্মিতে দু’‌সপ্তাহের ট্রেনিং শেষ করলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। শনিবার লে–র বিমানবন্দরে দেখা যায় বিশ্বকাপ জয়ী প্রাক্তন অধিনায়ককে। লে থেকে দিল্লি ফিরেছেন তিনি। 
টেরিটোরিয়াল আর্মি–১০৬টিএ ব্যাটেলিয়ন (‌‌প্যারা)‌‌–এর সঙ্গে জম্মু ও কাশ্মীরে গত ৩০ জুলাই যোগ দিয়েছিলেন ধোনি। টেরিটোরিয়াল আর্মির সাম্মানিক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ধোনি গত দু’‌সপ্তাহ ট্রেনিংয়ের পাশাপাশি সীমান্তে পাহারাও দিয়েছেন। ১৫ আগস্ট তাঁর ট্রেনিং শেষ হয়েছে। স্বাধীনতা দিবসে নতুন কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল লাদাখে ছিলেন মাহি। সেখানে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ককে স্বাগত জানান সেনাবাহিনীর সদস্যরা। তারপর তাঁকে সেনা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে ভর্তি রোগীদের সঙ্গে আলাদা করে কথা বলেন ধোনি। কথা ছিল স্বাধীনতা দিবসে সিয়াচিনে যাবেন তিনি। সিয়াচিনে নিহত সেনাদের স্মৃতি সৌধে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করবেন। তবে সেখানে শেষ পর্যন্ত গিয়েছিলেন কিনা তা এখনও জানা যায়নি। কিন্তু সেনা সূত্রে জানা গেছে এই ১৫ দিনের ট্রেনিংয়ের মধ্যে উরি এবং অনন্তনাগ অঞ্চলে গিয়েছিলেন ধোনি। 
কাশ্মীরে অশান্ত পরিবেশে ধোনির জীবনের ঝুঁকি হতে পারে এমন আশঙ্কা ছিল অনেকেরই মনে। কী দরকার ছিল এভাবে যাওয়ার?‌ এমন প্রশ্নও জেগেছিল কারও কারও মনে। কিন্তু সেই সময়ই সেনা প্রধান আশ্বস্ত করে বলেছিলেন, ‘‌ধোনির নিরাপত্তার প্রয়োজন নেই। বরং ও–ই সীমান্তের মানুষকে নিরাপত্তা দেবে।’‌ সিনিয়র এক সেনা কর্তাও পরে জানিয়েছিলেন, ‘‌ভারতীয় সেনার ব্র‌্যান্ড অ্যাম্বাসাডর ধোনি। সেনাদের উৎসাহ দেওয়া, তাদের সঙ্গে ফুটবল, ভলিবল খেলার পাশাপাশি কঠোর ট্রেনিংও করেছেন।’‌ উল্লেখ্য, ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড থেকে দু’‌মাসের ছুটি নিয়ে সেনাবাহিনীতে যোগ দিয়েছিলেন ধোনি। 
‌‌‌এদিকে শুধু সেনাদের সঙ্গে সময় কাটানো বা ট্রেনিং নেওয়া নয়, লাদাখে ছোটদের জন্য ক্রিকেট অ্যাকাডেমি গড়ার প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন মাহি। লে–তে ছোটদের সঙ্গে ক্রিকেট খেলছেন তিনি, এমন একটি ছবি শনিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তবে ছোটদের সঙ্গে এই ক্রিকেট ম্যাচ তিনি কোনও মাঠে খেলেননি। খেলেছেন বাস্কেটবল কোর্টে!‌ সিমেন্টের পিচে। তবে বাস্কেটবল কোর্টেও অবলীলায় ব্যাট চালিয়েছেন ধোনি। তাঁকে দেখে একবারও মনেই হয়নি কোনওরকম অসুবিধে হচ্ছে। ধোনি যখন ক্রিকেট খেলছেন, তখন দর্শকের ভূমিকায় ছিল ছোট, বড় সবাই। মাহিকে চোখের সামনে দেখে সবাই যে আপ্লুত, বলাই বাহুল্য। ‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top