সংবাদ সংস্থা: অ্যাশেজের লড়াই এরকমই হয়। থাকে ক্রমাগত ওঠা–নামা। সিরিজে ১–২ পিছিয়ে থাকা অবস্থায় শেষ টেস্টে সুবিধেজনক জায়গায় ইংল্যান্ড। 
অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে পঞ্চম টেস্টের তৃতীয় দিনে ক্রমশ জাঁকিয়ে বসছে ইংল্যান্ড। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত তারা এগিয়ে রয়েছে ৩০৬ রানে। জো ডেনলির (‌৯৪)‌ দুরন্ত ইনিংসের সৌজন্যে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ইংল্যান্ডের স্কোর ৪ উইকেটে ২৩৭। অস্ট্রেলিয়া ইতিমধ্যেই অ্যাশেজ নিজেদের কবজায় রেখে দিলেও, শেষ টেস্টে এখনও পর্যন্ত যা পরিস্থিতি তাতে জিততে গেলে রীতিমতো অসম্ভবকে সম্ভব করতে হবে তাদের। 
আগেরদিন বিনা উইকেটে ৯ রান নিয়ে খেলা শুরু করে ইংল্যান্ড। রোরি বার্নস (‌২০)‌ এবং ডেনলির ওপেনিং জুটিতে ওঠে ৫৪ রান। অবাক করার মতো ব্যাপার হল, দু’‌দল মিলিয়ে ওপেনিং জুটিতে এটাই এই সিরিজের সর্বোচ্চ রান। বার্নস ফিরে যাওয়ায় পর ইংল্যান্ডের অধিনায়ক জো রুট ক্রিজে আসেন। তিনি বড় রান করতে ফের ব্যর্থ। পরপর দুটি উইকেট নিয়ে নাথান লায়ন তখন চাপে ফেলে দিয়েছিলেন ইংল্যান্ডকে।
কিন্তু বেন স্টোকস এসে পরিস্থিতি সামাল দেন। তিনি এবং ডেনলি ক্রমশ ইংল্যান্ডকে বড় রানের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন। দুই ব্যাটসম্যানের বিরুদ্ধে আউটের একাধিক আবেদন করলেও, সাফল্য পেতে ব্যর্থ হন অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা। উপায় না দেখে ছ’‌জন বোলারকে ব্যবহার করেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পেইন। কিন্তু কেউই সেভাবে সাফল্য এনে দিতে পারছিলেন না।
লায়নই এসে শেষ পর্যন্ত উদ্ধার করেন অস্ট্রেলিয়াকে। তৃতীয় উইকেটে ডেনলি–স্টোকসের ১২৭ রানের জুটি ভেঙে দেন তিনি। ব্যক্তিগত ৬৭ রানের মাথায় তিনি সরাসরি বোল্ড করে দেন বেন স্টোকসকে। ফ্রন্টফুটে এসে ডিফেন্স করতে চেয়েছিলেন স্টোকস। কিন্তু লায়নের বলের লাইন একেবারেই বুঝতে পারেননি তিনি। পুরোপুরি লাইন মিস করেন। বল এসে তাঁর অফস্টাম্প ছিটকে দেয়।
এর কিছুক্ষণ পরে ফিরে যান জো ডেনলিও। শতরান থেকে মাত্র ৬ রান দূরে থামেন তিনি। তবে এবার লায়ন নন, ডেনলিকে ফিরিয়ে দেন পিটার সিডল। কামন্স, হ্যাজেলউড উইকেট পাননি।
স্কোর
ইংল্যান্ড প্রথম ইনিংস ২৯৪। অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস ২২৫। ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংস:‌ বার্নস ক পেইন ব লায়ন ২০, ডেনলি ক স্মিথ ব সিডল ৯৪, রুট ক স্মিথ ব লায়ন ২১, স্টোকস ব লায়ন ৬৭, বেয়ারস্টো অপরাজিত ৬, বাটলার অপরাজিত ১১, অতিরিক্ত ১৩, মোট (‌৬৯ ওভারে, ৪ উইকেটে)‌ ২৩৭। উইকেট পতন:‌ ১/‌৫৪, ২/‌৮৭, ৩/‌২১৪, ৪/‌২২২। বোলিং:‌ কামিন্স ১৩–‌৪–‌২৭–‌০, হ্যাজেলউড ১৫–‌৫–‌৪০–‌০, লায়ন ১৮–৩২–‌৫৬–৩২, সিডল ১১–৩–৫১–‌১, মার্শ ৬–‌১–‌২০–‌০, লাবুশানে ৬–‌০–‌২৬–‌০। (‌স্কোর অসম্পূর্ণ)‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top