‌‌আজকালের প্রতিবেদন: সরকারিভাবে উদ্বোধন না হলেও ইডেনের আধুনিক ইনডোর স্টেডিয়াম এবং লাগোয়া ডর্মিটরি প্রয়োজনে করোনা–আক্রান্তদের জন্য অস্থায়ীভাবে ব্যবহার করতে পারে রাজ্য সরকার। সিএবি–র প্রাক্তন সভাপতি তথা বিসিসিআই বর্তমান সভাপতি সৌরভ গাঙ্গুলি মঙ্গলবার এই প্রস্তাব দিয়েছেন। সৌরভ বলেছেন, ‘‌রাজ্য সরকার চাইলে আমরা ইনডোর এবং লাগোয়া ডর্মিটরি তাদের হাতে তুলে দেব। এখন যা পরিস্থিতি তাতে এভাবেই সকলকে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। সিএবি–ও দেবে। কোনও সমস্যা হবে না।’‌ লকডাউন নিয়ে সন্তুষ্ট সৌরভ বলেছেন,‌ ‘‌এই পরিস্থিতিতে এটাই সেরা রাস্তা। কখনও কখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থাকে না। রাজ্য সরকার এবং স্বাস্থ্য দপ্তর সহযোগিতা করতে বললে আমরা তা হুবহু অনুসরণ করব। গোটা বিশ্ব যেমন করছে।’‌ পাশাপাশিই অচেনা কলকাতার চারটি ছবি টুইটারে পোস্ট করে সৌরভ লিখেছেন, ‘‌আমার শহরকে এভাবে দেখব ভাবতেই পারিনি। সবাই নিরাপদে থাকুন। ভালর জন্যই এই ব্যবস্থা। আশা করি দ্রুত এই অবস্থা বদলাবে। সবাইকে অনেক ভালবাসা।’‌
সৌরভের দ্বিতীয় প্রিয় শহর লন্ডনও ২১ দিনের লকডাউনে। সেখানকার বাসিন্দা তাঁর কাকা অনিমেষ মুখার্জি এবং তাঁর পরিবারকে চিন্তিত সৌরভ বলেছেন, ‘‌কাকার বয়স ৮০। কাকিমারও বয়স যথেষ্টই। কথা বলছি নিয়মিত। সতর্ক আছেন। ২১ দিনের লকডাউন মেনেও চলছেন। বিলেতের স্বাস্থ্যব্যবস্থা অনেক উন্নত। তবু চিন্তা তো হয়ই।’‌ একইসঙ্গে সৌরভ বলেছেন, ‘‌গত ২০ বছরে নিজের জন্য এত সময় ব্যয় করিনি। জানি না, কত বছর পর সোম থেকে শুক্রবার সারাদিন বাড়িতে আছি। ব্যস্ত থাকাকালীন রবিবারটা ছুটি পেয়েছি। তবে এই পরিস্থিতি একেবারে আলাদা।’‌‌
বাংলার অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরন–সহ অনুষ্টুপ মজুমদার, শাহবাজ আহমেদ, শ্রীবৎস গোস্বামী, মুকেশ কুমার, ইশান পোড়েল, আকাশ দীপ, অর্ণব নন্দী, নীলকণ্ঠ দাস, অভিষেক রামন, ঋত্বিক রায়চৌধুরীরাও এক বার্তায় লকডাউন মানার আবেদন জানিয়েছেন। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top