সংবাদ সংস্থা, মেলবোর্ন: একই দিনে জোড়া নক্ষত্রপতন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে। তৃতীয় রাউন্ড থেকে ছিটকে গেলেন সেরেনা উইলিয়ামস এবং ক্যারোলিন ওজনিয়াকি। আগেই ঘোষণা করেছিলেন, সেই মতোই টেনিসকে বিদায় জানালেন বিশ্বের প্রাক্তন এক নম্বর ওজনিয়াকি। দীর্ঘ ১৫ বছরের কেরিয়ারে যিনি একটিই গ্র‌্যান্ড স্লাম জিতেছেন, ২০১৭ সালে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন।
মাত্র ২৯ বছরের কেরিয়ারে ওজনিয়াকি তিনবার বছর শেষ করেছেন ১ নম্বর হিসেবে। কিন্তু তখনও তাঁর ক্যাবিনেটে ঢোকেনি কোনও গ্র‌্যান্ড স্লাম। দীর্ঘ কেরিয়ারে একাধিকবার চোট–আঘাতে ভুগেছেন, ফিরেও এসেছেন। গল্‌ফার রোরি ম্যাকিলরয়ের সঙ্গে সম্পর্ক ছিল। বাগদানও সেরে ফেলেছিলেন। কিন্তু আচমকাই সেই সম্পর্ক শেষ করে দিয়েছিলেন ম্যাকিলরয়। যা প্রভাব ফেলেছিল ওজনিয়াকির কেরিয়ারে। ২০১৭–র অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জয় তাঁর সবথেকে গর্বের মুহূর্ত।
টিউনিশিয়ার ওন্স জাবেউরের বিরুদ্ধে এদিন ৫–৭, ৬–৩, ৫–৭ হারেন ওজনিয়াকি। তাঁর ফোরহ্যান্ড কোর্টের বাইরে পড়তেই দর্শকরা উঠে দাঁড়িয়ে হাততালি দিতে থাকেন। সাক্ষাৎকার দিতে এসে চেষ্টা করলেও কান্না থামাতে পারেননি ওজনিয়াকি। বললেন, ‘‌আমি সাধারণত কাঁদি না। কিন্তু আজ একটা বিশেষ দিন। এই মুহূর্ত সারাজীবন মনে রাখব। একটা দুর্দান্ত যাত্রা আজ শেষ হল। পরবর্তী অধ্যায়ের জন্য আমি তৈরি।’‌ যোগ করলেন, ‘‌শেষ ম্যাচটা তিন সেটের হল এটা ভেবেই ভাল লাগছে। পাশাপাশি ফোরহ্যান্ডের ভুলে হারলাম এটাও মনে থাকবে।’‌ নিজের কেরিয়ারের ওঠাপড়ার স্মৃতিচারণ সম্পর্কে ওজনিয়াকি বললেন, ‘‌ছোটবেলা থেকেই গ্র‌্যান্ড স্লাম জেতা এবং বিশ্বের এক নম্বর হওয়ার স্বপ্ন দেখতাম।

লোকে ভাবত আমি পাগল। এত ছোট দেশ থেকে কেউ কোনওদিন ওই জায়গায় যায়নি। তবে আমার নিজের ওপরে বিশ্বাস ছিল। প্রতিদিন কঠোর পরিশ্রম করেছি। একটা জিনিস শিখেছি, কোথা থেকে এসেছ, তোমার গায়ের রঙ কী, লম্বা না বেঁটে এসব কোনও ব্যাপার নয়। যদি একটা স্বপ্ন থাকে এবং তার পিছনে ধাওয়া করো, তাহলে সবই সম্ভব।’‌
এদিকে, ১৪ বছর পর অস্ট্রেলিয়া ওপেন থেকে এত তাড়াতাড়ি বিদায় নিলেন সেরেনা। চীনের ওয়াং কিয়াং ৬–৪, ৬–৭ (‌২–৭)‌, ৭–৫ হারিয়েছেন সেরেনাকে। মা হওয়ার পর চারটে গ্র‌্যান্ড স্লামের ফাইনালে উঠে হেরেছেন সেরেনা। ২৪তম মেজর জিতে মার্গারেট কোর্টকে ছোঁয়ার জন্য আরও অপেক্ষা করতে হবে তাঁকে। এই ওয়াংকেই চার মাস আগে মাত্র একটা গেম জিততে দিয়েছিলেন সেরেনা। এদিন তাঁকে ডুবিয়েছে দুর্বল ব্যাকহ্যান্ড। হেরে সেরেনা বললেন, ‘‌আমি একদমই সার্ভ করতে পারিনি। সত্যি বলতে, আজ আমার কাঁধই ভুগিয়েছে। এভাবে খেলা একদমই উচিত নয়।’‌
আরও একটি অঘটন হয়েছে মহিলা টেনিসে। পঞ্চদশী কোকো গাউফের কাছে হেরে গিয়েছেন গতবারের বিজয়ী নাওমি ওসাকা। ৬–৩, ৬–৪ গেমে। ইউএস ওপেনে ওসাকার কাছে হেরে কান্নায় ভেঙে পড়েছিলেন গাউফ। এদিন আবার রড লেভারের সঙ্গে সেলফি তোলার ইচ্ছেপ্রকাশ করেছেন। অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গতবারের কোনও বিজয়ীকে হারালেন গাউফ। মহিলাদের মধ্যে জিতেছেন শীর্ষ বাছাই অ্যাশলে বার্টি।‌

সব ছবি: এএফপি

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top