আজকালের প্রতিবেদন- বাংলার ক্রিকেটে এবার থাবা বসাল করোনাভাইরাস। আক্রান্ত বাংলার রনজি জয়ী দলের সদস্য সাগরময় সেনশর্মা। সিএবি সূত্রের খবর, পরীক্ষায় প্রাক্তন এই পেস বোলারের শরীরে করোনার নমুনা পাওয়া গিয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে তিনি নিজেই ফোন করে সেকথা জানিয়েছেন সিএবি কর্তাদের।
জানা গিয়েছে, বর্তমানে বাংলার সিনিয়র নির্বাচক বরানগর আলমবাজারের সাগরময়ের স্ত্রী করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। তিনি সুস্থ হয়ে ফেরার পর দু’‌সপ্তাহ কোয়ারেন্টিনেও ছিলেন। বাড়ি ফেরার পর পরিবারের সদস্যদের শারীরিক পরীক্ষা হয়। সেখানে বাকিদের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও সাগরময়ের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তারপরই তাঁকে বাইপাস লাগোয়া এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর ঘনিষ্ঠদের সূত্রে জানা গিয়েছে, সুস্থই আছেন বাংলার এই সিনিয়র নির্বাচক।
সম্বরণ ব্যানার্জির নেতৃত্বে ১৯৮৯–৯০ মরশুমে বাংলার রনজি জয়ী দলের সদস্য ছিলেন সাগরময়। অবসর নেন ১৯৯৬–৯৭ মরশুমে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৪৭ ম্যাচে তাঁর নামের পাশে ১৪৯ উইকেট। লিস্ট ‘‌এ’‌ ক্রিকেটে ১৯ ম্যাচে ১৬ উইকেট। সাগরময়ের করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়ার পরই সিএবি থেকে তাঁর প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।
ওদিকে, আগামী মরশুমের জন্য অনুশীলনের গাইডলাইন স্থির করে ফেলেছে সিএবি। ক্রিকেটার, কোচ, সাপোর্ট স্টাফদের সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে একগুচ্ছ পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এক কর্তার কথায়, ‘‌এবার থেকে অনুশীলনের সময় ক্রিকেটারকে ব্যক্তিগত সরঞ্জাম দেওয়া হবে। কেউ অন্যের জিনিস ব্যবহার করতে পারবেন না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে ক্রিকেটারদের কয়েকটা গ্রুপে ভাগ করে দেওয়া হবে। ড্রেসিংরুমে পোশাক বদল করতে দেওয়া হবে না। এছাড়াও ড্রেসিংরুম লাগোয়া একটা আইসোলেশন রুমও করা হচ্ছে।’‌

ফাইল ছবি
‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top