আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ লম্বা মরশুম শেষে ক্রিকেটাররা ক্লান্ত। কিন্তু বিশ্রামের সুযোগ কোথায় ভারতীয় ক্রিকেটারদের!‌ সামনে ক্রিকেট বিশ্বকাপ। কিছুদিনের মধ্যেই টিম ইন্ডিয়া উড়ে যাবে ইংল্যান্ডে। আইপিএল সবে শেষ হয়েছে। বিশ্বকাপে ভারতের সাফল্য নির্ভর করছে ক্রিকেটারদের সুস্থতার উপর। এমনটাই মনে করছেন ১৯৮৩–র বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের সদস্য রজার বিনি। তিনি বলেছেন, ‘‌ভারতীয় দলকে সুস্থ ও ফিট থাকতে হবে। আইপিএল মরশুম শেষে কাজটা শক্ত। তবে সবাই পেশাদার। আমার মতে, বিশ্বকাপের আগে আরও কয়েকটি একদিনের ম্যাচ খেলতে পারলে ভাল হত।’‌ বিশ্বকাপের আগে বাকি দলগুলি একদিনের সিরিজ খেলছে। ভারতীয় ক্রিকেটাররা সেখানে আইপিএলে ব্যস্ত ছিলেন। এ ব্যাপারে বিনির মত, ‘‌বাকি দলগুলোর দিকে লক্ষ্য রাখছি। পাকিস্তান বিশ্বকাপ শুরুর আগে ইংল্যান্ডে ১১টি একদিনের ম্যাচ খেলবে। তবে এতে বিরাট কিছু সুবিধা হবে বলে মনে করছি না। টেস্ট সিরিজ হলে অন্য কথা ছিল। কিন্তু টি২০ ও একদিনের ক্রিকেটে পরিস্থিতি ভিন্ন। ইংল্যান্ডের উইকেটে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে সাম্প্রতিক অতীতে ৩০০ প্লাস রান উঠছে। একদম পাটা উইকেট। তাই ভারতের চিন্তার বিশেষ কারণ নেই। সরফরাজ আহমেদের দল ভারতের তুলনায় কম শক্তিশালী।’‌ কেদার যাদব ইতিমধ্যেই চোট পেয়ে বসে আছেন। তিনি সুস্থ না হলে কে যাবেন বিশ্বকাপে?‌ বিনির বাজি ঋষভ পন্থ। তিনি বলেছেন, ‘‌সুস্থ থাকলেই ভারতের সম্ভাবনা বাড়বে। কেদারকে নিয়ে একটা অনিশ্চয়তা রয়েছে। ও না পারলে ঋষভকে নেওয়া হোক। যে কোনও বোলিংকে ধ্বংস করার ক্ষমতা রাখে পন্থ। ম্যাচের রঙ বদলে দিতে পারে। তবে শট নির্বাচনে ঋষভকে আরও সতর্ক হতে হবে।’‌  

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top