আজকালের প্রতিবেদন: তিনি বিরাট কোহলিদের কোচ। ঠিক হয়ে গেছে। কিন্তু ভারতীয় ক্রিকেট দলের কোচ নির্বাচন পদ্ধতি নিয়ে আরও বিস্তারিতভাবে মুখ খুললেন রবি শাস্ত্রী। সেইসঙ্গে আভাস দিলেন ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার।
কোচ নির্বাচন পদ্ধতিটা ঠিক কতটা কঠিন ছিল?‌ কেন দীর্ঘ সময় ধরে প্রেজেন্টেশন দিতে হয়েছে?‌ এই প্রশ্নের জবাবে শাস্ত্রী বলেছেন, ‘‌নির্বাচন পদ্ধতিটা সত্যিই কঠিন ছিল। সব দিক দিয়ে প্রেজেন্টেশন দেওয়ার চেষ্টা করেছি। এইসব ক্ষেত্রে তথ্য তুলে দেওয়া খুবই জরুরি। গত দু’‌বছরে যেমন ভারত সব ঘরানায় ৭১ শতাংশ ম্যাচ জিতেছে। ট্রফিজয়ের শতাংশের হার আরও কী করে বাড়ানো যায়, কীভাবে একজনের ব্যক্তিগত দক্ষতার উন্নতি সম্ভব— সব দিকেই নজর দিয়েছি। তথ্য তুলে ধরেছি।’‌  
২০১৮–তে তো এক ডজন ক্রিকেটারের অভিষেক ঘটেছিল। সেইসব প্লেয়ারদের নিয়ে তাঁর ভাবনা কী?‌ শাস্ত্রী বলেছেন, ‘‌দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনার কথা যদি ভাবি তা হলে রিজার্ভ বেঞ্চের শক্তি বাড়াতেই হবে। নতুন মুখ উঠে আসা দরকার। ঋষভ, বুমরা, কুলদীপ, হার্দিক, শঙ্কর— একের পর এক উঠে আসছে। এটাই দরকার। টি২০ বিশ্বকাপের কথা যদি ভাবি, তা হলেও এটা জরুরি।’‌ 
ব্যক্তিগতভাবে যেভাবে প্লেয়ারদের খেয়াল রাখেন, যেমন কঠিন সময়ে যেভাবে সামির পাশে দাঁড়িয়েছেন তা সত্যিই প্রশংসনীয়। এই বিষয়টা নিয়ে কিছু বলবেন?‌ শাস্ত্রীর কথায়, ‘‌ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা সত্ত্বেও যেভাবে সামি বল করছে তার তো প্রশংসা করতেই হবে। ক্রিকেট এখনও ওর জীবনে সবার আগে। প্লেয়াররা সুযোগের সদ্ব্যবহার করে নিজেদের প্রতিভার প্রতি সুবিচার করবে, এটাই কাঙ্ক্ষিত। আমার কাজ ওদের পাশে থাকা। তাই থাকি।’‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top