আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আই লিগ–আইএসএল দ্বৈরথে এবার সরাসরি ঢুকে পড়ল বিজেপি। কয়েকদিন আগেই দেশের ফুটবলের স্বার্থে এবং আই লিগকে বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ চেয়ে চিঠি দিয়েছিল ক্লাব জোট। আর শুক্রবার শহরের একটি পাঁচতারা হোটেলে বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়ের সঙ্গে দেখা করলেন মোহনবাগান–ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষ কর্তারা। শুক্রবার মোহনবাগানের পক্ষ থেকে ছিলেন দেবাশিস দত্ত ও সৃঞ্জয় বোস আর ইস্টবেঙ্গলের তরফে হাজির হয়েছিলেন দেবব্রত সরকার এবং ডঃ শান্তিরঞ্জন দাশগুপ্ত। এই বৈঠকের নেপথ্যে ছিলেন প্রাক্তন ফুটবলার তথা এবার কৃষ্ণনগর লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কল্যাণ চৌবে। এদিনের এই বৈঠকে দুই দলের কর্তাদেরই সব কথা শোনেন কৈলাস। তিনি জানিয়েছেন, দিল্লি ফিরে এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীকে সবিস্তারে জানাবেন। আসলে আই লিগ ক্লাব জোটদের চিঠি পেয়ে প্রধানমন্ত্রীও চাইছেন, সমস্যার সমাধান করতে। আই লিগকে সর্বোচ্চ লিগের স্বীকৃতি দিতে রাজি নন ফেডারেশন কর্তারা। ইতিমধ্যেই আইএসএলকে শীর্ষ লিগ বলে ঘোষণা করা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে ফুটবল ফেডারেশনের সঙ্গে অহি–নকুল সম্পর্ক দুই প্রধানের। বৈঠক শেষে কৈলাস বলেন, ‘‌কল্যাণ জানিয়েছিল দুই ক্লাবের কর্তারা আমার সঙ্গে কথা বলতে চেয়েছিল। সেই মতোই আজ দেখা করলাম। আমার মনে হয়েছে, বর্তমানে ক্লাবগুলির লোকসান হচ্ছে। তার মানে ফুটবলেরও ক্ষতি হচ্ছে। যা ঠিক নয়। ফুটবল ও ফুটবলারদের কথা ভাবতে হবে। ইতিমধ্যেই আমার কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রীর সঙ্গে কথাও হয়েছে। প্রধানমন্ত্রীর কাছেও ক্লাবকর্তারা চিঠি পাঠিয়েছেন। তাই এই জট কাটাতে যতদূর যেতে হবে, যাব।’‌ বৈঠক শেষে আশাবাদী ইস্ট–মোহন সব পক্ষই। এবার দেখার, আই লিগ–আইএসএল দ্বন্দ্বের জল কোন দিকে গড়ায়।‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top