আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শেহবাগের ভূমিকায় এবার রোহিতকে দেখতে চান অধিনায়ক বিরাট কোহলি। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বিধ্বংসী ব্যাটিং উপহার দেওয়ার পর টেস্ট ওপেনার হিসেবেও দুরন্ত সফল হয়েছিলেন বীরু। দুটো ত্রিশতরান রয়েছে। রোহিত শর্মাও সীমিত ওভারের ক্রিকেটে ওপেনার হিসেবে চূড়ান্ত সফল। এবার টেস্টেও ওপেনার রোহিতকে নিয়ে পরীক্ষা শুরু করে দিল ভারত। অতীতে টেস্টে সুযোগ পেলেও মিডল অর্ডারে থিতু হতে পারেননি তিনি। তবে বিশাখাপত্তনমে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তিন টেস্টের প্রথমটায় কিন্তু লেটার মার্কস পেয়ে গেলেন রোহিত গোপীনাথ শর্মা। 
এর আগে মিডল অর্ডার থেকে ওপেনিংয়ে এসে প্রথম ইনিংসেই সেঞ্চুরি করেছিলেন বীরেন্দ্র শেহবাগ। সেটাও ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে। তবে তা ছিল প্রোটিয়াদের দেশে, ভারতের অ্যাওয়ে সিরিজে। রোহিতও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে ওপেনার হিসেবে নেমেই শতরান করলেন। তবে তা এল ঘরের মাঠে। যদিও ঘরের মাঠে রোহিতের টেস্টে ব্যাটিং গড় চমকে দেওয়ার মত। ৯৮.‌২২। 
বুধবার টস জিতে অধিনায়ক বিরাট কোহলি ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিলেন। দুই ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল ও রোহিত দলকে শক্ত ভিতের উপর দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন। বিনা উইকেটে ২০২ রান তুলে ফেলেছে ভারত। রোহিত করে ফেলেছেন ১১৫। ইতিমধ্যেই ১২টি চার ও ৫টি ছয় হাঁকিয়েছেন। মায়াঙ্ক ব্যাট করছেন ৮৪ রানে। চা পানের বিরতিতে ভারতের রান ছিল বিনা উইকেটে ২০২। বৃষ্টির জন্য অবশ্য একটু আগেই চা পানের বিরতি ঘোষণা করেন আম্পায়াররা। তারপর আর খেলা শুরু করা যায়নি। আম্পায়াররা বৃষ্টির জন্য প্রথমদিনের খেলা বন্ধ করে দেন। এটা ঘটনা যে বিশাখাপত্তনমে পাঁচদিনই কোনও না কোনও সময় বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। প্রথমদিনই থাবা বসাল বৃষ্টি। নষ্ট হল ৩০.‌৫‌ ওভার। যা স্বস্তি দেবে দক্ষিণ আফ্রিকা শিবিরকে। 
ঋষভ পন্থ ব্যর্থ হওয়ার পর বিশাখাপত্তনমে উইকেটের পিছনে খেলছেন ঋদ্ধিমান সাহা। অশ্বিনকেও রাখা হয়েছে প্রথম একাদশে। জাদেজা আছেন। দুই পেসার ইশান্ত ও সামি। ‌১০ মাস পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরলেন অফস্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন। ২২ মাস পরে টেস্টের এগারোয় ফিরলেন উইকেটরক্ষক ঋদ্ধিমান সাহা। তবে প্রথমদিন যাবতীয় আকর্ষণ কেড়ে নিলেন রোহিত শর্মাই। 
টেস্টে ওপেন করতে নেমেই শতরান। জীবনের চতুর্থ টেস্ট শতরান এটা রোহিতের। অর্ধশতরান এসেছিল ৮৪ বলে। শতরান আসে ১৫৪ বলে। শুরুতে ফিল্যান্ডার, রাবাডার বিরুদ্ধে একটু দেখে খেলছিলেন। স্পিনাররা আক্রমণে আসতেই মারমুখী হিটম্যান। মাঠের চারিদিকে বল পাঠিয়েছেন। সম্প্রতি ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে দলে থাকলেও সুযোগ পাননি প্রথম একাদশে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে লোকেশ রাহুল জঘন্য পারফর্ম করায় সুযোগ আসে রোহিতের সামনে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে তাঁকে ওপেনার হিসেবে বেছে নেন নির্বাচকরাই। আর ওপেনিংয়ে নেমে প্রথম ইনিংসেই তিনি বুঝিয়ে দিলেন, সীমিত ওভারের ক্রিকেটের মতোই ক্রিকেটের দীর্ঘতম ফর্মাটেও রাজত্ব করতে এসেছেন তিনি। রোহিতের পাশে মায়াঙ্ককেও আত্মবিশ্বাসী লাগছে। শতরানের দোড়গোড়ায় তিনিও। ‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top