সংবাদ সংস্থা, রাজকোট: বাংলাদেশের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় টোয়েন্টি২০ ম্যাচে দলের জোরে বোলিং কম্বিনেশন বদলের ইঙ্গিত দিলেন রোহিত শর্মা। সেই সঙ্গে সাফাই দিলেন দলের ব্যাটিং লাইন–আপ নিয়ে। 
প্রথম টি২০ ম্যাচে হারের পর দল ঘুরে দাঁড়াতে মরিয়া। কিন্তু ওপেনার শিখর ধাওয়ান তো বেশ কিছুদিন ধরে সমস্যায়। শুরুটা ভাল না হলে কি আদৌ ঘুরে দাঁড়ানো সম্ভব?‌ রোহিত সরাসরি এ প্রশ্নের জবাব দেননি। উল্টে নিজের মতো ব্যাখ্যা দিয়েছেন, ‘‌আমাদের ব্যাটিং মোটামুটি ভালই হচ্ছে। তাই ব্যাটিং লাইন–আপে বদলের প্রশ্নই ওঠে না। তবে পিচ দেখে ও পরিস্থিতি বুঝে আমরা এগোব।’‌ 
প্রথম ম্যাচে খেলা খলিল আহমেদের জায়গায় দ্বিতীয় ম্যাচে শার্দূল ঠাকুরকে নেওয়ার সম্ভাবনা আছে। অধিনায়ক অবশ্য কারও নাম নেননি। বলেছেন, ‘‌দিল্লির পিচ দেখেই আমরা আগের ম্যাচে জোরে বোলিং কম্বিনেশন ঠিক করেছিলাম। এখানকার পিচ আরও একবার দেখে ঠিক করব দ্বিতীয় ম্যাচে পেস বোলিং কম্বিনেশন কী হওয়া দরকার।’‌ দিল্লির থেকে রাজকোটের পিচ ভাল হবে আশায় রোহিত। বলেছেন, ‘‌রাজকোটের পিচ সবসময়ই ব্যাটসম্যানদের পক্ষে আদর্শ। বোলাররাও এই পিচ থেকে কিছু না কিছু সাহায্য পায়। নিশ্চিত দিল্লির থেকে এখানকার পিচ অনেক ভাল। ফলে লড়াইটা জমবে।’‌ 
দ্বিতীয় ম্যাচে সতীর্থদের থেকে কী আশা করছেন?‌ কোন পরিকল্পনায় এগোবেন?‌ রোহিতের জবাব, ‘‌কী পরিকল্পনা কষেছি সেটা আগে থেকে বলব না। তবে আমাদের দৃষ্টিভঙ্গিতে বদল চোখে পড়বেই। দিল্লির পিচে কত রান করলে সেটা যথেষ্ট হবে, আমরা বুঝিনি। তবে রাজকোটের পিচ ভাল। তাই অন্যভাবে খেলব। অন্য মানসিকতা নিয়ে।’‌
প্রথম ম্যাচে হারের পর কি ভারতের বোলাররা চাপে আছেন?‌ রোহিত বলেছেন, ‘‌ভাল পারফর্ম করার চাপ তো সবসময়ই থাকে। তবে কোনও বিশেষ বিভাগের ওপর বাড়তি চাপ নেই। আমাদের দল হেরেছে। বোলিং বিভাগ হারেনি। ব্যাটসম্যানদের যেমন রান করতে হবে, তেমনই বোলারদের তুলে নিতে হবে উইকেট। আগের ম্যাচে যে ভুল করেছি, তার যেন পুনরাবৃত্তি না ঘটে।’‌ 
ঘরের মাঠে ভারত শেষ টি২০ সিরিজ জিতেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে গত বছর। তারপর অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে ১–১ ড্র করেছে। এখন বাংলাদেশের সঙ্গে ০–১ পিছিয়ে। সমস্যাটা ঠিক কী?‌ রোহিত বলেছেন, ‘‌টি২০–তে আমরা প্রচুর নতুন প্লেয়ারকে খেলাচ্ছি। দলের গুরুত্বপূর্ণ প্লেয়ার এই সিরিজেও খেলছে না। তাই তরুণদের দেখে নেওয়া হচ্ছে। এটা অবশ্যই একটা কারণ। তবে নতুন প্লেয়ারদের দেখে নেওয়াটা অন্যায় নয়। আমরা আসলে রিজার্ভ বেঞ্চের শক্তি বাড়াতে চাইছি। তবে তার মানে এই নয় আমরা জিততে পারব না। অবশ্যই জিতব।’‌  ‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top