আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আশঙ্কা ছিল। ম্যাচে থাবা বসাবে বৃষ্টি। সকালের দিকে ওল্ড ট্রাফোর্ডে বৃষ্টি হয়নি। কিন্তু শেষপর্যন্ত বৃষ্টি এল। শুরু হল কিউয়ি ইনিংসের ৪৭ তম ওভারে। ফলে বন্ধ খেলা। বৃষ্টি এতটাই হল যে আজকের মতো বাতিল করে দেওয়া হল ম্যাচ। ফলে মঙ্গলবার আর ম্যাত না হওয়ায় বাকি খেলা হবে আগামীকাল অর্থাৎ বুধবার ‘‌রিজার্ভ ডে’–তে। যেখানে খেলা শেষ হয়েছে সেখান থেকেই ফের শুরু হবে ম্যাচ। আর কোনওভাবে কাল এক বলও খেলা না হলে গ্রুপ টেবিলে শীর্ষে থাকায় ভারত পৌঁছে যাবে ফাইনালে।
এদিন ম্যাচে গুরুত্বপূর্ণ টসটা জিতলেন কিউয়ি অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। তবে বুমরা, ভুবির দাপটে সুবিধা নিতে পারলেন না!‌ আলাদা করে কিছু বলার নেই বুমরাকে নিয়ে। শুরু থেকেই এমন চাপে রাখলেন, যে গাপটিল (‌১)‌ প্রথম স্লিপে দাঁড়ানো বিরাটের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে গেলেন। তখন কিউয়িদের রান উঠছিল কচ্ছপের গতিতে। হেনরি নিকোলাস ও কেন উইলিয়ামসন ইনিংস সামলানোর দায়িত্ব নিলেন বটে। তবে রানের গতি বাড়াতে পারেননি। নিকোলাস (‌২৮)‌ বোল্ড হলেন জাদেজার বলে। শ্রীলঙ্কা ম্যাচের পর এদিনও বল হাতে সফল জাদেজা। মাত্র ৩৪ রান দিলেন নিজের ১০ ওভারে। সঙ্গে একটা উইকেট। সামির অভাব বুঝতে দেননি। সঙ্গে ফিল্ডিং তো থাকছেই। অন্তত ১০ রান বাঁচিয়েছেন। 
এদিনের ম্যাচে একটাই পরিবর্তন করল ভারত। কুলদীপের জায়গায় ফেরানো হল চাহালকে। কেন উইলিয়ামসনকে (‌৬৭)‌ ফেরালেও সবচেয়ে বেশি রান তিনিই দিলেন। ১০ ওভারে ৬৩ মোটেই চাহাল সুলভ নয়। 
অধিনায়ক ফেরার পর দায়িত্ব নিলেন রস টেলর। বিক্ষিপ্তভাবে আক্রমণ করলেও ভারতীয়দের চাপে ফেলতে পারেনি কিউয়িরা। যখন বৃষ্টি নামে, তখন ৪৬.‌১ ওভারে কিউয়িদের রান ২১১/‌৫। রস টেলরের (‌৬৭)‌ সঙ্গে খেলছেন টম ল্যাথাম। যা পরিস্থিতি তাতে ২৫০ রানের ভিতরেই থেমে যাওয়ার কথা কিউয়িদের। কারণ ইনিংসের বাকি ওভারটা সারবেন ভুবি ও বুমরা। ব্যাটিংয়ে ভয়ঙ্কর ভরাডুবি না হলে ফাইনালে যাওয়ার ব্যাপারে অ্যাডভান্টেজ টিম ইন্ডিয়াই। ‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top