আজকালের প্রতিবেদন- ম্যাচ শুরুর আগেই চমক। বিশ্রামে মহেন্দ্র সিং ধোনি। ম্যাচের আগে পিঠে টান ধরায় নিজেকে সরিয়ে নিয়েছিলেন চেন্নাই সুপার কিংস অধিনায়ক। আইপিএলের ইতিহাসে এই নিয়ে চতুর্থবার মাঠে নামলেন না ধোনি। তাঁর না থাকাটা পার্থক্য গড়ে দিয়ে গেল। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের কাছে ৬ উইকেটে হারতে হল চেন্নাই সুপার কিংসকে।  টস জিতে ধোনির পরিবর্তে নেতৃত্ব দিতে নামা সুরেশ রায়না ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন। ওয়াটসন ও ডুপ্লেসি ওপেনিং জুটিতে তোলেন ৭৯। দশম ওভারে চেন্নাই শিবিরে প্রথম ধাক্কা দেন শাহবাজ নাদিম। তুলে নেন শেন ওয়াটসনকে (‌২৯ বলে ৩১)‌। এর পরই ধস নামে চেন্নাই মিডল অর্ডারে। পরের ওভারেই ডুপ্লেসিকে (‌৩১ বলে ৪৫)‌ ফেরান বিজয় শঙ্কর। ১৪তম ওভারে সুরেশ রায়না (‌১৩)‌ ও কেদার যাদবকে (‌১)‌ তিন বলের ব্যবধানে তুলে নিয়ে চেন্নাইকে কোণঠাসা করে দেন রশিদ খান (‌২/‌১৭)‌। সাম বিলিংসও (‌০)‌ ব্যর্থ। ধোনির অভাব এদিন বারবার ফুটে উঠল। শেষ পর্যন্ত ২০ ওভারে ১৩২/‌৫ তোলে চেন্নাই। অম্বাতি রায়ডু ২৫ রানে অপরাজিত থাকেন।
জয়ের জন্য ১৩৩ রানের লক্ষ্য খুব একটা কঠিন নয়। হায়দরাবাদের কাজ আরও সহজ করে দেন দুই ওপেনার ওয়ার্নার ও বেয়ারস্টো। ওপেনিং জুটিতে তোলেন ৬১। ওয়ার্নার (২৫ বলে ‌৫০)‌ ফিরে গেলেও দলকে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন বেয়ারস্টো (‌৪৪ বলে অপরাজিত ৬১)‌। উইলিয়ামসন (‌৩)‌, বিজয় শঙ্কররা (‌৭)‌ রান পাননি। দু’‌জনেই ইমরান তাহিরের (‌২/‌২০)‌ শিকার। ‌১৬.‌৫ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় হায়দরাবাদ। এদিন জিতে নাইট রাইডার্সকে পেছনে ফেলে লিগ টেবিলে ৫ নম্বরে উঠে এল হায়দরাবাদ।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:‌ 
চেন্নাই সুপার কিংস:‌ ১৩২/‌৫ (‌২০ ওভারে, ‌ডুপ্লেসি ৪৫, রশিদ খান ২/‌১৭)‌।
সানরাইজার্স হায়দরাবাদ:‌ ১৩৭/‌৪ (‌‌১৬.‌৫ ওভারে, বেয়ারস্টো ৬১, ওয়ার্নার ৫০, তাহির ২/‌২০)‌।
 ফল:‌ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ ৬ উইকেটে জয়ী।
 ম্যাচের সেরা:‌ ওয়ার্নার।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top