সংবাদ সংস্থা, লন্ডন: এটিপি ফাইনালসের সেমিফাইনালে যাওয়ার জন্য জিততেই হত। তার ওপর বিপক্ষের নাম নোভাক জকোভিচ। তবুও থামানো গেল না রজার ফেডেরারকে। বৃহস্পতিবার লন্ডনে সুইস মহাতারকার দাপটে খেই হারালেন সার্বিয়ান। জকোভিচকে ৬–৪, ৬–৩ গেমে হারালেন ফেডেরার। বহু ব্যবহারে ক্লিশে হয়ে গেলেও ৩৮ বছরের ফেডেরার আবার মনে করিয়ে দিলেন, বয়স নিছকই সংখ্যা মাত্র। 
দুই তারকার মুখোমুখি লড়াইয়ে ২৬–২৩ ব্যবধানে এগিয়েই থাকলেন জকোভিচ। বৃহস্পতিবারের সাক্ষাতের আগে শেষ পাঁচটি ম্যাচে তিনি হারিয়েছেন ফেডেরারকে। যার মধ্যে রয়েছে গত জুলাইয়ে উইম্বলডনে মহাকাব্যিক ফাইনালও। সেই হারের মধুর প্রতিশোধ নিলেন ফেডেরার। 
ও২ এরিনার সিংহভাগ দর্শকই গলা ফাটিয়েছেন ফেডেরারের হয়ে। যা নিঃসন্দেহে ভাল খেলতে উদ্বুদ্ধ করেছে তাঁকে। খেলার পর আপ্লুত ফেডেরার বলেছেন, ‘‌দারুণ পরিবেশ, দারুণ প্রতিপক্ষ। অবশ্যই বিশেষ মুহূর্ত। শুরু থেকেই উপভোগ করেছি। অবিশ্বাস্য খেলেছি। উল্টোদিকে নোভাক ছিল, তাই আমাকে এমন খেলতেই হত।’‌ তারপর দর্শকদের দিকে তাকিয়ে ফেডেরারের মন্তব্য, ‘‌আপনারা এই ম্যাচটাকে সুপার স্পেশ্যাল বানিয়েছেন। আপনাদের জন্য কোনও ধন্যবাদই যথেষ্ট নয়।’‌ উল্লেখ্য, দর্শকাসন থেকে বারবার ভেসে এসেছে সমবেত আওয়াজ, ‘‌লেট’‌স গো, রজার, লেট’‌স গো’‌। 
এবারের এটিপি ফাইনালস খেতাব জিতলে জকোভিচের সামনে সুযোগ থাকত বিশ্বের এক নম্বর স্থান ধরে রাখার। কিন্তু ফেডেরারের কাছে হার সেই সুযোগ নষ্ট করে দিয়েছে। নিশ্চিত হয়ে গিয়েছে শীর্ষে ফিরছেন রাফায়েল নাদাল। হারের পর জকোভিচ স্বীকার করে নিয়েছেন, তিনি ভাল খেলতে পারেননি। তাঁর মন্তব্য, ‘সব দিক দিয়ে ভাল খেলেছে ও (‌ফেডেরার)‌। যোগ্য হিসেবেই জিতেছে। দুর্দান্ত সার্ভ, দারুণ নড়াচড়া, আমার সার্ভ দারুণভাবে রিটার্ন করা। ও যা করেছে সবই ঠিক হয়েছে।’‌ 
ডমিনিক থিয়েমের কাছে হেরে এটিপি ফাইনালসের সেমিফাইনালে ওঠা অনিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। সংশয় দূর করেছেন ফেডেরার। এটিপি ফাইনালসে ১৭ বার অংশ নিয়ে ১৬ বারই শেষ চারে গেলেন। জকোভিচের বিরুদ্ধে ম্যাচ নিয়ে ফেডেরার বলেন, ‘‌আমি দারুণ সার্ভ করেছি। অনুমান ক্ষমতাও ঠিক ছিল। গেম প্ল্যান ছিল পরিষ্কার। যা কাজেও দিয়েছে। আমার কাছে এটা দারুণ পারফরমেন্স।’‌ হেরে গেলেও ফেডেরারকে নিয়ে শ্রদ্ধা ঝরে পড়েছে জকোভিচের গলায়, ‘‌ওর প্রতি আমার প্রচণ্ড শ্রদ্ধা রয়েছে। ও যা যা অর্জন করেছে, এখনও যেভাবে খেলছে তা অবিশ্বাস্য। ও রোল মডেল। এমনকী আমারও। আমার কেরিয়ারের অন্যতম কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বী। ওর কেরিয়ার, এখনও যা যা করছে তা অনুপ্রাণিত করে।’‌

এটিপি ফাইনালসে ম্যাচের পর নোভাক জকোভিচকে সান্ত্বনা দিচ্ছেন রজার ফেডেরার। ছবি: পিটিআই   ‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top