আজকাল ওয়েবডেস্ক: ফের আলোচনার শীর্ষে উঠে এলে ধোনির অবসের প্রসঙ্গ। শোনা যাচ্ছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই অবসর ঘোষণা করতে পারেন ধোনি। আর সেই নিয়ে আগামী ১৭–১৮ জুলাই ক্রিকেট নির্বাচক কমিটির প্রধান এম এস কে প্রসাদের সঙ্গে আলোচনায় বসার কথা রয়েছে মাহির। সেখানেই অবসর নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে খবর। 
আগামী ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে বিশ্রাম দেওয়া হচ্ছে বিরাট কোহলিকে। শোনা যাচ্ছে, সেখানেই জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ছেন ধোনি। এরপর, সামনের বছরই রয়েছে টি২০ বিশ্বকাপ। সেখানেও ভারতের হয়ে দেখা যাবে না ধোনিকে। সেই দলেও নাকি মাহিকে ছেঁটে ফেলার কথা ভেবেছেন নির্বাচকরা। সব খেলোয়াড়েরই স্বপ্ন থাকে, ফর্মের চূড়ান্ত অবস্থায় থেকে অবসর নেওয়ার। খারাপ ফর্ম চললেও ধোনি এখনও ভারতীয় ক্রিকেটের একজন উল্লেখযোগ্য অংশ হিসাবেই নিজেকে রেখে দিয়েছেন। তাই এখনই অবসর নেওয়ার সেরা সময় বলে মনে করছে ক্রিকেট মহল। একটি জাতীয় সংবাদমাধ্যমে দাবী করা হয়েছে, বোর্ডের এক সদস্য তাদের নাম করে জানিয়েছেন, ‘‌এখন নবাগত ঋষভ পন্থের মতো খেলোয়াড়রা রয়েছেন। তাঁদের এখন ভারতীয় ক্রিকেটকে অনেক কিছু দেওয়ার আছে। তাই অবসর না নিলে হয়ত ধোনিকে দল থেকে ছেঁটে ফেলা হতে পারে। কারণ, তিনি এখন আর আগের মতো নেই।’‌
অবশ্য অন্য দাবিও আছে, অনেকেই বলছেন ধোনির এখনও খেলা উচিত। অন্তত আগামী টি২০ ক্রিকেট বিশ্বকাপ পর্যন্ত। বিশ্বকাপের পরেই ধোনির অবসরের কথা ওঠায়, লতা মঙ্গেশকর টুইট করে ধোনিকে অবসর না নিতে অনুরোধ করেছিলেন।  

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top