আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ধোনি ভক্ত হলেই চলবে। তাহলেই মিলবে বিনা পয়সায় খাবার। তারজন্য বেশিদূর যাওয়ার দরকার নেই। আলিপুরদুয়ারে গেলেই হবে। 
রেস্তোরাঁর নাম ‘‌এমএস ধোনি হোটেল।’‌ মালিক শম্ভু বোস। যিনি নিজে একজন ধোনির অন্ধ ভক্ত। আর ধোনি ভক্তদের সম্পূর্ণ বিনামূল্যে তিনি খাওয়ান। প্রায় দু’‌বছর ধরে এই কাজ করে চলেছেন শম্ভু। বিনামূল্যে খেতে গেলে কোনও প্রমাণপত্র লাগে না। শুধু বললেই হবে আমি ধোনি ভক্ত!‌
মালিক শম্ভু দাস বলছিলেন, ‘‌এই দুর্গাপুজোয় ২ বছর পূর্ণ হবে। এই দোকানের কথা সবাই জানে। খেতে আসে। কাউকে জিজ্ঞাসা করুন ধোনি হোটেল। যে কেউ দেখিয়ে দেবে।’‌ ৩২ বছরের শম্ভু সেই ২০০৫ থেকে ধোনি ভক্ত। যেদিন ধোনির আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেক হয়েছিল। শম্ভু বলছিলেন, ‘‌ধোনি সবার থেকে আলাদা। ছোটবেলা থেকেই ধোনির ভক্ত। মানুষ হিসেবে অসাধারণ। ক্রিকেটার হিসেবে কিংবদন্তি। আমার অনুপ্রেরণা।’‌ 
দোকানের ভিতরে সর্বত্র রয়েছে ধোনির পোস্টার। মাহির বিভিন্ন সময়ের খেলা ক্রিকেটের কিছু সেরা ইনিংস পোস্টার আকারে দেওয়ালে টাঙানো রয়েছে। শম্ভুর বাড়িতেও রয়েছে ধোনির একাধিক পোস্টার। তাঁর কথায়, ‘‌ধোনিকে দেখে অনেক কিছু শেখা যায়। একবার মাহির সঙ্গে দেখা করার ইচ্ছে রয়েছে। কিন্তু অত টাকা নেই যে স্টেডিয়ামে গিয়ে ধোনির খেলা দেখব।’‌ 
মাঝের ঝোল খেতে ভালবাসেন ধোনি। শম্ভুর ইচ্ছে, ধোনিকে একবার অন্তত মাছের ঝোল খাওয়াবেন। 
বাইশ গজে ব্যাট হাতে কোনওদিন না নামলেও শম্ভু সত্যিকারের স্পোর্টসম্যান। আর স্পোর্টসম্যান মানেই যে জেন্টলম্যান। তা গোটা দুনিয়া জানে।  ‌‌

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top