আজকালের প্রতিবেদন: দুটি দলই দাঁড়িয়ে রয়েছে ১০ পয়েন্টে। দুটি দলই খেলেছে ৬টি করে ম্যাচ। এমন পরিস্থিতিতে বুধবারের ম্যাচটি মহমেডান এবং ভবানীপুর, দু’‌দলের কাছেই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করছেন দুই শিবিরের দুই সেনাপতি। সাদা–কালো টিডি দীপেন্দু বিশ্বাস এবং ভবানীপুর কোচ শঙ্করলাল চক্রবর্তী, দু’‌জনেই একই আখড়া থেকে তালিম নিয়ে বেরিয়েছিলেন ফুটবলার হিসেবে। টাটা ফুটবল অ্যাকাডেমি। দ্বিতীয়জন কোচ হিসেবে ইতিমধ্যেই স্বীকৃতি পেয়েছেন। প্রথমজন বড় ক্লাবের টিডি হিসেবে সদ্য কাজ শুরু করেছেন। দু’‌জনেই দু’‌জনের সাফল্য চান। তবে বুধবার নিজেরাই সফল হতে চাইছেন।
মহমেডান টিডি দীপেন্দু বিশ্বাস ফুটবলারদের পইপই করে বুঝিয়ে দিয়েছেন, ভবানীপুরকে নিজেদের মাঠে হারাতে পারলেই কলকাতা লিগ খেতাবের দৌড়ে অনেকটাই এগিয়ে যাওয়া সম্ভব। তাই যেভাবেই হোক, হারাতেই হবে ভবানীপুরকে। অন্যদিকে ভবানীপুর কোচ শঙ্করলাল তাঁর ফুটবলারদের বলেছেন, ‘পরপর দুটো ম্যাচ হেরে খানিকটা পিছিয়ে পড়েছি। তোমরা যদি মহমেডানকে হারাতে পারো, তা হলে আবার চ্যাম্পিয়নশিপের দৌড়ে ঢুকে পড়া যাবে। সুযোগটা কাজে লাগাতে হবে।’
দুই দলেই ফুটবলার না পাওয়ার একটা সমস্যা রয়েছে। মোহনবাগানের বিরুদ্ধে লাল কার্ড দেখায় ভবানীপুরের অনুপ খেলতে পারছেন না। তেমনই আমিরুেলর চোট থাকায় তাঁকে পাচ্ছে না মহমেডান।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top