আজকালের প্রতিবেদন: বৃহস্পতিবারের ফ্রেন্ডলিতে জিতল দক্ষিণ আমেরিকার তিন প্রধান দলই। আমেরিকাকে ২–০ ব্যবধানে হারিয়েছে ব্রাজিল। লিওনেল মেসিহীন আর্জেন্টিনা ৩–০ জিতেছে গুয়াতেমালার বিপক্ষে। আর লুই সুয়ারেজের জোড়া গোলের দৌলতে মেক্সিকোকে ৪–১ উড়িয়ে দিয়েছে উরুগুয়ে। বিশ্বকাপ তিন দলের কাছেই হতাশাজনক কেটেছে। সে ধাক্কা কাটিয়ে যে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে তারা, এদিনের ফল তারই প্রমাণ।
দলে তারুণ্যকে সুযোগ দেবেন বলে বিশ্বকাপের অনেককেই দলে নেননি ব্রাজিল কোচ টিটে। তরুণরা সেই আস্থার দাম রাখলেন। ম্যাচের ফল দেখে বোঝা না গেলেও, ৯০ মিনিটের বেশিরভাগটাই আমেরিকাকে নিয়ে ছেলেখেলা করল ব্রাজিল। ১১ মিনিটের মাথায় ডগলাস কোস্তার দুরন্ত পাস থেকে ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন রবার্তো ফিরমিনো। মাঝমাঠে আধিপত্য বজায় রেখেই আরও গোল তুলে নিতে পারত ব্রাজিল। কিন্তু নেইমার–সহ একাধিক খেলোয়াড় সুযোগ নষ্ট করেন। যদিও পেনাল্টি থেকে দ্বিতীয়ার্ধে নেইমার গোল করেছেন, তবে সেই পেনাল্টি নিয়ে বিতর্ক রয়েছে। ফ্যাবিনহোকে বক্সে ফেলে দেওয়া হলেও, তাঁর সঙ্গে বিপক্ষের কারওর সঙ্ঘর্ষই হয়নি। ম্যাচের পর টিটে বলেছেন, বিশ্বকাপের হতাশা আর দুঃখ কাটিয়ে ব্রাজিল ঘুরে দাঁড়াতে চাইছে। তাঁর কথায়, ‘‌বিশ্বকাপের যাত্রাটা আবেগপ্রবণ ছিল। আমি খেলোয়াড়দের থেকে কিছু আশা করেছিলাম। ওরা সেটা মেটাতে পেরেছে। তবে ফিরমিনো, কোস্তা, ফ্রেডের মতো খেলোয়াড়দের আরও সময় দিতে হবে।’‌ ব্রাজিলের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনাল্ডোকে (‌৬২)‌ ছোঁয়া থেকে আর মাত্র পাঁচ গোল পিছনে নেইমার।

প্রত্যাশাতমতোই এদিন দলকে নেতৃত্ব দিয়েছেন তিনি। অধিনায়ককে নিয়ে টিটের মত, ‘‌সবার চোখই থাকে নেইমারের দিকে। কিন্তু ওর আচরণকে সবসময় কড়া চোখে দেখবেন না।’‌
বিশ্বকাপের হতাশা কাটিয়ে প্রায় নতুন দল নামিয়েছিলেন আর্জেন্টিনার অন্তর্বর্তীকালীন কোচ লিওনেল স্কালোনি। সেই দল তাঁকে হতাশ করল না। দেশের হয়ে নেমেই গোল পেলেন জিওভান্নি সিমিওনে, সম্পর্কে যিনি অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ কোচ দিয়েগো সিমিওনের ছেলে। এছাড়াও গোল করেন আরেক অভিষেককারী গঞ্জালো মার্টিনেজ এবং জিওভানি লো সেলসো। র‌্যাঙ্কিংয়ে ১৩৫ ধাপ পেছনে থাকা গুয়াতেমালাকে হারাতে কোনও বেগই পেতে হয়নি আর্জেন্টিনাকে। গোটা ম্যাচে তাদেরই দাপট। অন্যদিকে, বার্সিলোনার হয়ে তাঁর ফর্ম পড়তির দিকে থাকলেও, দেশের জার্সি গায়ে ঝলসে উঠলেন সুয়ারেজ। উরুগুয়েকে হোসে জিমেনেজ এগিয়ে দেওয়ার পর সমতা ফেরান বিপক্ষের রাউল জিমেনেজ। এরপর ৩২ মিনিটে দুর্ধর্ষ ফ্রিকিক এবং ৪০ মিনিটে ‘‌পানেনকা’‌ পেনাল্টি থেকে উরুগুয়েকে এগিয়ে দেন সুয়ারেজ। দ্বিতীয়ার্ধে ব্যবধান বাড়ান পেরেইরা। অন্য এক ফ্রেন্ডলিতে, বেলজিয়াম ৪–০ হারিয়েছে স্কটল্যান্ডকে। জোড়া গোল মিচি বাতশুয়াইর। অপর দুটি গোল রোমেলু লুকাকু এবং ইডেন হ্যাজার্ডের।‌‌

 

 

নেইমারের গোলে জিতল ব্রাজিল। 
উরুগুয়ের জোড়া গোলের নায়ক সুয়ারেজ। ছবি:‌ এএফপি

 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top