আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিপাকে ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি। বর্তমান বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলি, প্রাক্তন ক্রিকেটার রাহুল দ্রাবিড়ের পর এবার স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগে বিদ্ধ বিরাট। তাঁর বিরুদ্ধে একই সময়ে একাধিক লাভজনক সংস্থার সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগ উঠেছে। আর এই অভিযোগ প্রমাণিত হলে বড়সড় শাস্তি পেতে হতে পারে কোহলিকে। বিরাটের বিরুদ্ধে স্বার্থের সংঘাতের অভিযোগ এনেছেন মধ্যপ্রদেশ ক্রিকেট সংস্থার আজীবন সদস্য সঞ্জীব গুপ্তা। বিসিসিআইয়ের এথিকস অফিসার তথা অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি ডি কে জৈনের কাছে একটি চিঠি লিখেছেন সঞ্জীব। এর আগে শচীন তেণ্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, ভিভিএস লক্ষণদের মতো তারকাদের বিরুদ্ধেও এই একই ধরনের অভিযোগ এনেছিলেন সঞ্জীব। তাঁর করা অভিযোগের ভিত্তিতে শচীন, সৌরভদের বিসিসিআইয়ের ক্রিকেট উপদেষ্টামণ্ডলীর পদ ছাড়তে হয়। পরে অবশ্য তাঁরা নির্দোষ প্রমাণিত হন। এবার সঞ্জীব গুপ্তা বিরাট কোহলিকে নিয়ে পড়েছেন। তাঁর অভিযোগ, বিসিসিআইয়ের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হওয়া সত্ত্বেও বিরাট ক্রীড়া সম্পর্কিত একাধিক সংস্থার সঙ্গে যুক্ত আছেন। যা লোধা কমিশন ও সুপ্রিম কোর্টের সুপারিশের বিরোধী। নিজের অভিযোগ পত্রে বিরাটের দুটি সংস্থার নামও লিখে দিয়েছেন সঞ্জীব গুপ্তা। তাঁর অভিযোগ এই দুটি সংস্থার সঙ্গে যুক্ত থেকে বিসিসিআইয়ের নিয়ম ভেঙেছেন কোহলি। তবে সঞ্জীব গুপ্তার এই অভিযোগে খুব একটা আমল দিতে নারাজ বিসিসিআই। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top