সংবাদ সংস্থা, লন্ডন, ১২ আগস্ট- অ্যাশেজে দ্বিতীয় টেস্টের আগে সবথেকে বেশি হইচই হচ্ছে জোফ্রা আর্চারকে নিয়ে। চোট পাওয়া জেমস অ্যান্ডারসনের জায়গায় লর্ডসে ইংল্যান্ড খেলাতে চলেছে আর্চারকে। তবে তাঁকে সামলানোর রাস্তা বার করে ফেলেছেন জাস্টিন ল্যাঙ্গার।
অস্ট্রেলিয়া দলের কোচ ল্যাঙ্গার বলেছেন, ‘‌আর্চারকে দেখার জন্য মুখিয়ে আছি। গত ১১ মাসে লাল বলে ও মাত্র একটাই ম্যাচ খেলেছে। ও যথেষ্ট ভাল বোলার। কিন্তু টেস্ট ক্রিকেট সম্পূর্ণ আলাদা। আমরা ঠিক করেছি, ওর প্রথম স্পেলটা দেখেশুনে খেলে দেব। তারপর দেখব দ্বিতীয়, তৃতীয় বা চতুর্থ স্পেলে সেই একই গতিতে বল করতে পারে কিনা।’‌
২০০৪ সালে ভারত সফরে এসে অস্ট্রেলিয়া জিতেছিল। সেই দলে ছিলেন ল্যাঙ্গার। সেই সফরের অভিজ্ঞতা স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নারদের শোনাচ্ছেন তিনি। বলেছেন, ‘‌সেবার গিলক্রিস্ট আমাদের ক্যাপ্টেন ছিল। আমাদের একটাই পরিকল্পনা ছিল। শৃঙ্খলাবদ্ধ পারফরমেন্স করা। কাসপ্রোভিচ, গিলেসপি, ম্যাকগ্রাথরা সেটাই করেছিল। এখানেও আমরা ২০ বছর জিততে পারিনি। ওই ভারত সফরের শৃঙ্খলাটা এখানেও দরকার। এজবাস্টনে জেতার পরেও বলেছিলাম, শুরুটা যেমন ভাল হয়েছে, শেষ পর্যন্ত তেমন খেলে যেতে হবে। আমরা এজবাস্টন টেস্ট জিততে আসিনি। এসেছি অ্যাশেজ জিততে।’‌‌‌
ঐচ্ছ্বিক অনুশীলন থাকলেও অস্ট্রেলীয় নেটে হাজির হয়েছিলেন স্মিথ, ওয়ার্নার এবং অধিনায়ক টিম পেইন। ল্যাঙ্গারের মতে, ইংল্যান্ডে পা রাখার পর থেকে স্মিথ–ওয়ার্নারকে এত অযাতিত নজরে পড়তে হচ্ছে। সেজন্যই ওদের মধ্যে সাফল্যের খিদে আরও বেড়ে গিয়েছে। ল্যাঙ্গার বলেন, ‘‌স্মিথ শেষ কয়েকদিন ঘুমিয়েছে। কিন্তু ওয়ার্নার প্রথম টেস্টে সেভাবে কিছু করতে পারেনি। আইপিএল, বিশ্বকাপে দারুণ ছন্দে ছিল। ফলে ও কিন্তু পুরো এনার্জি নিয়ে এখানে নামবে। এই দু’‌জনের ছন্দে থাকাটা আমাদের কাছে বড় স্বস্তি।’‌
নির্বাসন কাটিয়ে ক্রিকেটে ফিরলেও স্মিথ, ওয়ার্নার যে এখনও সেই ঘটনা থেকে পুরোপুরি বেরিয়ে আসতে পারেননি তা স্বীকার করে নিয়েছেন ল্যাঙ্গার। বলেন, ‘‌ওরা এখনও লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। ইংল্যান্ডে পা রাখার পর থেকেই সেটা চলছে। তবে দু’‌জনই দারুণভাবে পরিস্থিতি সামলাচ্ছে। এজবাস্টনে দর্শকদের উদ্দেশ্যে ওয়ার্নারের রসবোধ দেখে আমি অবাক হয়ে গিয়েছিল। আর স্মিথ তো মাঠে নেমে ব্যাট হাতেই সব জবাব দিয়ে দিয়েছে।’‌

পাঁচ টেস্টের অ্যাশেজ সিরিজে প্রথম টেস্ট জিতে এখন উচ্ছ্বাসে ভাসছে অস্ট্রেলিয়া। লর্ডসে সোমবার ফটো সেশনের সময় গোটা দল কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে হাড্‌ল করল। ছবি: টুইটার

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top