আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কেরিয়ারের সবচেয়ে খারাপ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছেন কুলদীপ যাদব। আন্তর্জাতিক ক্রিকেট হোক বা আইপিএল–নিয়মিত সুযোগ মিলছে না। বছর দেড়েক আগেও কুলদীপ যাদবকে ভারতের অন্যতম সেরা স্পিনার বলা হত। সময় যত এগিয়েছে কুলদীপের পারফরম্যান্সের গ্রাফও পড়েছে। অনেকে মনে করেন উইকেটের পিছনে মহেন্দ্র সিং ধোনির না থাকাটা কুলদীপের পারফরম্যান্সেও প্রভাব ফেলেছে। আর ভারতীয় চায়নাম্যান স্পিনার মেনে নিচ্ছেন যে তিনি ধোনির গাইডেন্স মিস করছেন।
কুলদীপ বলেছেন, ‘‌মাহিভাইয়ের পরামর্শগুলো মিস করি। ওঁর প্রচুর অভিজ্ঞতা। মাহিভাই উইকেটের পিছনে দাঁড়িয়ে সবসময় আমাদের গাইড করত। সেই অভিজ্ঞতাটা মিস করছি। এখন ঋষভ এসেছে। ও যত বেশি খেলবে, তত অভিজ্ঞ হবে। ভবিষ্যতে অনেক বেশি ইনপুট দিতে পারবে। আমার আর একটা জিনিস সবসময় মনে হয়, প্রত্যেক বোলারের একজন পার্টনার দরকার। যে উল্টোদিক থেকে সাহায্য করবে। যখন মাহিভাই ছিল, তখন আমি আর চাহাল একসঙ্গে খেলতাম। মাহিভাইয়ের অবসরের পর আমি আর চাহাল একসঙ্গে খুব একটা খেলিনি। তারপর থেকে আমি কয়েকটা ম্যাচে শুধু খেলেছি।’‌ অস্ট্রেলিয়া সফরে একটা টেস্টেও দলে জায়গা হয়নি। ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টিমে ফিরলেও প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স হয়নি। কুলদীপ বলেছেন, ‘‌আমি যতটা ভেবেছিলাম, ততগুলো ম্যাচ খেলতে পারিনি। আমার আত্মবিশ্বাসও কম ছিল। টানা খেলতে থাকলে আত্মবিশ্বাস অনেক বেশি থাকে।’‌ 
আইপিএলেও নিয়মিত জায়গা হচ্ছে না। কেকেআরের প্রথম একাদশে খেলছেন বরুণ চক্রবর্তী। হতাশায় কুলদীপ বলে গেলেন, ‘‌আইপিএলেও প্রথম একাদশে জায়গা না পেয়ে প্রচন্ড হতাস হয়েছি। ম্যানেজমেন্ট সিদ্ধান্ত ছিল। তা নিয়ে প্রশ্ন তোলা অবশ্য উচিত নয়।’‌ এদিকে নিউজিল্যান্ডকে টপকে আইসিসি টেস্ট ক্রমতালিকার প্রথম স্থানে উঠে এলেন বিরাট কোহলিরা। কিউয়িরা এখন দু’নম্বরে। ভারতের রেটিং পয়েন্ট ১২১। আর নিউজিল্যান্ডের ১২০। অস্ট্রেলিয়াকে টপকে ইংল্যান্ড উঠে এসেছে তিনে। অস্ট্রেলিয়া চারে। পাঁচে পাকিস্তান। আর সাতে আছে দক্ষিণ আফ্রিকা। 

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জনপ্রিয়

Back To Top