‌আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এক বা দুই নয়, টানা ৬৬ বছর নখ কাটেননি তিনি। আর তাই হাতের নখ বড় হতে হতে ৩১ ফুট বেড়ে গিয়েছিল। শুধু তাই নয়, সেই কীর্তির জন্য ২০১৬ সালে গিনেস বুক অব ওয়ার্ল্ড রেকর্ডেও নাম উঠেছিল ভারতীয় শ্রীধর চিল্লালের। অবশেষে ৮২ বছর বয়সে এসে সেই নখ কাটলেন তিনি।

তবে ফেলে দেওয়ার বদলে চিল্লালের সেই নখ সংরক্ষণ করা হল মিউজিয়ামে। ১৯৫২ সালে শেষবার বাঁ–হাতের নখ কেটেছিলেন শ্রীধর। তারপর থেকে আর সেই হাতের নখ কাটেননি। ফলে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে নখ বেড়ে ৩১ ফুট লম্বা হয়ে যায়। আর এ কারণে ওই হাত আস্তে আস্তে অকেজো হয়ে পড়ে। তবে শেষপর্যন্ত ২০১৮ সালে এসে সেই নখ কাটতে রাজি হলেন তিনি।

তাঁর নখগুলি আমেরিকার টাইমস স্কোয়্যারে অবস্থিত রিপ্লের ‘‌বিলিভ ইট অর নট’ নামে মিউজিয়ামে রাখা হয়েছে। ‌শ্রীধর নিজেই তাঁর নখগুলি সংরক্ষণের আবেদন করেছিলেন। এজন্য তাঁকে ভারত থেকে আমেরিকায় উড়ে নিয়ে যায় রিপ্লে। জানা গিয়েছে, তাঁর সবক’‌টি নখের মোট দৈর্ঘ্য ৯০৯.‌৬ সেমি।

এর মধ্যে একটি নখের দৈর্ঘ্য ১৯৭.‌৮ সেমি। কিন্তু কেন এত বড় নখ রেখেছিলেন তিনি?‌ শ্রীধর জানিয়েছিলেন, ছোটবেলায় শ্রীধরের জন্য তাঁর এক শিক্ষকের লম্বা নখ ভেঙে যায়। এরপর ওই শিক্ষক তাঁকে খুব বকা–ঝকা করেন। তারপর থেকেই আর নখ কাটেননি শ্রীধর। বলেন, ‘এই নখ রাখাটাকে আমি চ্যালেঞ্জ হিসেবে গ্রহণ করেছিলাম।‌’‌

জনপ্রিয়

Back To Top