আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দেশে কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। মৃতের মিছিল। অক্সিজেন, ওষুধ, হাসাপাতালের শয্যার জন্য হাহাকার। হন্যে হয়ে ঘুরছেন আত্মীয়রা। তার মধ্যেও কিছু মানুষের মানসিকতার পরিবর্তন হল না। অবস্থার সুযোগ নিয়ে রোগীর আত্মীয়কেই যৌন হেনস্থা।
দিন কয়েক আগে নিক আত্মীয়ের জন্য প্লাজমা চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দিয়েছিলেন মুম্বইয়ের তরুণী। তড়িঘড়ি সাহায্য পেতে দিয়েছিলেন নিজের নম্বরও। সাহায্য পেয়েছেন বটে। সঙ্গে কিছু উপরি পাওনাও জুটেছে। অন্তত তিন জন পুরুষাঙ্গের ছবি পাঠিয়েছে তরুণীর নম্বরে। তার পরেই তরুণীর সিদ্ধান্ত, যাই হয়ে যাক, ‘‌মহিলারা কখনও সোশ্যাল মিডিয়ায় নম্বর শেয়ার কোরো না’‌।
তরুণীর নাম শাশ্বতী শিবা। তাঁর এক আত্মীয় করোনা আক্রান্ত। দিন কয়েক আগে ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন হয়। শিবা জানালেন, কোন হাসপাতালে এই পরিষেবা মিলবে জানতে চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট দেন। তাঁর বিশ্বাস মতো সাহায্যও পেয়ে যান। পরে ওই রোগীর অবস্থা গুরুতর হয়। প্লাজমার দরকার পড়ে। 
তখন শিবার কয়েক জন বন্ধুও পাশে দাঁড়ান। সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের একটি পোস্ট দেন প্লাজমার খোঁজে। কয়েক জন আবার দিয়ে দেন বন্ধুর নম্বর। ব্যস‌!‌ দুর্ভোগের শুরু। প্রথমে কয়েক জন ফোন করে উত্যক্ত করতে থাকে শিবাকে। এক জন আবার জিজ্ঞেস করে বসে, তিনি ‘‌সিঙ্গল’‌ কিনা। বিপত্তির এখানেই শেষ নয়। একের পর এক পুরুষাঙ্গেরও ছবি আসতে থাকে শিবার মোবাইলে। সেই পরস্থিতিতে, যখন মহারাষ্ট্রে এক দিনে আক্রান্ত ৬২ হাজারেরও বেশি মানুষ। মারা গিয়েছেন ৫১২ জন। 
 

 

জনপ্রিয়

Back To Top