আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‌কেরলে বন্যা দুর্গতদের উদ্ধার করতে দিনরাত এক করে দিয়েছে সেনা এবং নৌসেনা বাহিনী। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই উদ্ধারকাজের ছবি ও ভিডিও ইতিমধ্যেই ভাইরাল। কেরলের অসময়ে পাশে দাঁড়ানোয় প্রতিরক্ষা বাহিনীর এই অবদান কখনই ভুলতে পারবে না কেরলবাসী। 
সেরকমই একটি ঘটনা ছুঁয়ে গেল হৃদয়। কেরলের বন্যা বিপর্যস্ত অঞ্চল থেকে মানুষদের উদ্ধার করে তাঁদের ভেলায় করে নিয়ে আসা হচ্ছে নিরাপদ স্থানে। ১৭ আগস্ট নৌসেনা কোচির একটি বাড়ি থেকে দু’‌জন মহিলাকে উদ্ধার করেন। নৌসেনার এই সাহায্যকে কৃতজ্ঞতা জানানোর জন্য একটি সুন্দর কাজ করল ওই পরিবার। নৌসেনার কম্যান্ডার বিজয় বর্মা নৌসেনার অ্যাডভান্স লাইট হেলিকপ্টার নিয়ে ওই দুই মহিলাকে উদ্ধার করেন। যে বাড়ি থেকে তাঁদের উদ্ধার করা হয়েছিল, সেই বাড়ির ছাদে সাদা রঙ দিয়ে ইংরাজিতে লেখা ‘‌থ্যাঙ্ক ইউ’‌ (‌ধন্যবাদ)‌। নৌসেনা তাঁদের নিজস্ব টুইটার অ্যাকাউন্টে এই ছবি পোস্ট করে লেখেন ‘‌সাবাশ’‌। কেরলের এই পরিস্থিতিতে পশ্চিম নৌসেনা কম্যান্ডোরা রবিবারই মাইসোর থেকে ভারতীয় নৌজাহাজ করে ত্রাণ সামগ্রী কেরলে নিয়ে আসেন। যাতে কেরলে বন্যা দুর্গতদের সাহায্যে তা লাগে।
১৯ আগস্ট একটি জাহাজে করে প্রায় ৭০ টন ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে আসা হয়। যার মধ্যে জলের বোতল, খাদ্য সামগ্রী, ফলমূল, দুধ, বিস্কুট এবং ওষুধপত্র ছিল। এই ত্রাণ সামগ্রীর মধ্যে মুম্বইয়ের বেশ কিছু স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার জিনিসও ছিল বলে জানা যায়। ইতিমধ্যেই ৩৮ হাজার মানুষকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। মারা গিয়েছে চারশোরও বেশি মানুষ। এই বন্যার জন্য কেরলে এখনও পর্যন্ত ক্ষতি হয়েছে ১৯,৫১২ কোটি টাকা।         

জনপ্রিয়

Back To Top