আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এই শহরে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামে আছে সড়ক। আছে সেতু, সরকারি ভবন। এবার জানা গেল কবিগুরুর নামে শহরে একটি ডাইনোসরও আছে!‌ মানে ডাইনোসরের একটি কঙ্কাল। যার নামকরণ করা হয়েছে রবীন্দ্রনাথের নামে। জানা গিয়েছে, ভারতেও নাকি একসময়ে ডাইনোসরদের বিচরণ ছিল। ১৮২৮ সালে প্রথম একটি জীবাশ্ম খুঁজে পাওয়া গিয়েছিল। সেটিকে পাঠানো হয়েছিল কলকাতা আর লন্ডনের জাদুঘরে। তেলঙ্গানার পোছমপল্লির একটি জায়গা থেকেই বেশিরভাগ ডায়নোসরের কঙ্কাল মিলেছে। তারপর ১৯৬১ সালে আরও একটি ডাইসোরের কঙ্কাল খুঁজে পাওয়া যায় তেলঙ্গনার আদিলাবাদ জেলা থেকে। গত ২২ অক্টোবর ইন্ডিয়ান ফরেস্ট সার্ভিসের আধিকারিক পারভিন কাসওয়ান নিজের টুইটার হ্যাণ্ডেলে এই তথ্য শেয়ার করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, ১৮ মিটার লম্বা আর ৭ টন ওজনের একটি ডাইনোসর নাকি কোনও এক সময়ে ছিল এই ভারতে। ডাইনোসরটির নাম বারাপাসরাস টেগোরি। এটিই ছিল প্রথম পাওয়া ডাইনোসরের সম্পুর্ণ শরীরের কঙ্কাল। ১৯৬১ সালেই দেশ জুড়ে পালিত হচ্ছিল রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের শতবর্ষ। কবিগুরুকে শ্রদ্ধা জানাতে ভারত থেকে উদ্ধার হওয়া প্রজাতির নাম রাখা হয়েছিল বারাপাসরাস টেগোরি। ‘‌বারাপা’ অর্থাৎ বড় পা। আর সরাস একটি গ্রীক শব্দ যার অর্থ টিকটিকি। জুরাসিক যুগের গোড়ার দিকে দেখা মিলত এই প্রজাতির ডায়নোসরদের। জানা যায়, সবচেয়ে পুরনো প্রজাতির ডায়নোসর এটি। তার মোট ৬০০টি হাড় পাওয়া গিয়েছিল। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top