আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ রাস্তার ধারে কমলা লেবুর বাগান। সেখানে সার সার দিয়ে চাদর বা কার্ডবোর্ড পাতা। তাতে শুয়ে রয়েছেন রোগীরা। ওঁদের সকলের করোনা হয়েছে। স্যালাইন চলছে। সেই বোতল ঝোলানো রয়েছে গাছে। আর চিকিৎসা করছে স্থানীয় হাতুড়ে ডাক্তার। এভাবেই কোভিড রোগীর চিকিৎসা চলছে মধ্যপ্রদেশের আগর–মালওয়া জেলার এক গ্রামে। ভিডিও প্রকাশ্যে আসতে শিউরে উঠেছেন লোকজন। নিমেষে ভাইরাল।
মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে ধানিয়াখেড়ি গ্রাম। তারই অদূরে জাতীয় সড়কের থেকে ২০০ মিটার দূরে কমলা বাগানে চলছে এই হাসপাতাল। আশপাশের ১০টি গ্রাম থেকে কোভিড আক্রান্তরা এখানেই চিকিৎসা করাতে আসছেন। কারও মুখে মাস্ক নেই। সামাজিক দূরত্ববিধিও শিকেয়। 
কেন যাচ্ছেন না সরকারি হাসপাতালে?‌ গ্রামবাসীদের জবাব ভয়। সেখানে রোজ বহু রোগী মারা যাচ্ছেন। যদিও ভিডিও গ্রাহকের সামনে মুখ খুলতে চাননি তাঁরা। চিফ মেডিকেল অফিসার সমান্দার সিং মালভিয়া খবর পেয়েই সেখানে একটি দলকে পাঠিয়েছেন। যদিও কারও খোঁজ মেলেনি। শুধু ওষুধের কিছু খালি বোতল পাওয়া গিয়েছে। জানিয়েছেন, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে এফআইআর হবে। ব্লক মেডিকেল অফিসার মণীশ কুরিলের আর্জি, ‘‌সর্দি, কাশি হলে সরকারি হাসপাতালে যোগাযোগ করুন’‌।
এই আগর মালওয়ায় শেষ ২৪ ঘণ্টায় ৮২ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪৯২। গত ক’‌দিন মধ্যপ্রদেশে রোজ ১২ হাজার জন নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছে। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top