আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শনিবার সকালে মহারাষ্ট্রের ভাণ্ডারা জেলা হাসপাতালের সদ্যোজাত শিশু বিভাগে আগুন লাগে। ১৭টি শিশু ছিল সেখানে। সাতটি শিশুকে কোনও মতে উদ্ধার করেন নার্সরা। বাকি ১০ জনে প্রাণ যায়। সেই ১০ জনের মধ্যে ছিল সেই শিশুও, জন্মের পরই ছেড়ে যায় যার বাবা–মা।
মৃত ন’‌টি শিশুর অভিভাবকের নাম পরিচয় জানা গেছে। পরিবারকে খবর দেওয়া হয়েছে। কেবল এই একটি শিশুপুত্রর পরিবারের খোঁজ মেলেনি। জানা গেছে, লক্ষণিতহশীলের প্রত্যন্ত কেশলওয়াড়া গ্রামে সদ্যোজাতকে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। ভর্তি করেন স্থানীয় হাসপাতালে। তাঁর অবস্থার অবনতি হয়। তখন শিশুটিকে এই ভাণ্ডারা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।
স্থানীয় সংবাদপত্রে শিশুটির বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়েছিল। পুলিশ খোঁজও চালাচ্ছিল। তার মধ্যেই এই বিপত্তি। শনিবারের পর শোকের ছায়া নেমেছে বেহেরে পরিবারেও। ভাণ্ডারা সোনঝারি গ্রামে গীতা বেহেরে ১০ নভেম্বর শিশুকন্যার জন্ম দেন। সময়ের আগে জন্মায় শিশুটি। ওজন ছিল ৮০০ গ্রাম। 
সেই থেকে এই হাসপাতালে ভর্তি। তবে অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল। তাই সাত–আট দিনেই তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়ার কথা ছিল। তার মধ্যে এই খবরে শোকের আবহ পরিবারে। 

জনপ্রিয়

Back To Top