আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ করোনা সংক্রমণে এমনিতেই নাজেহাল গোটা বিশ্ব। তার উপর ভারতে পরপর ঘূর্ণিঝড়, পঙ্গপালের হামলা। আর এবার ধেয়ে আসছে গ্রহাণু। চলতি জুন মাসেই পৃথিবী লক্ষ্য করে তিনটি বিশালাকৃতি গ্রহাণু ধেয়ে আসছে বলে জানিয়েছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। এই গ্রহাণুগুলির কোনও একটির সঙ্গে পৃথিবীর ধাক্কা লাগলেই মানব সভ্যতার বড়সড় ক্ষতি হতে পারে বলে আশঙ্কা।  এর মধ্যে প্রথম গ্রহাণুটি আসছে আগামী ৬ জুন শনিবার ভোর ৩টে ২০ মিনিটে। ওই সময় গ্রহাণুটি পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি এসে পৌঁছবে। পৃথিবী থেকে মাত্র ৫.০৯ মিলিয়ন কিলোমিটার দূর দিয়ে যাওয়ার কথা অ্যাস্টেরয়েড ২০০২ এনএন৪ নামে এই গ্রহাণুটির। এটির ব্যাসার্ধ ৫৭০ মিটার। অর্থাৎ পাঁচটি ফুটবল মাঠ বা দুবাইয়ের এনটিসার টাওয়ার ঢুকে যেতে পারে এর ভেতর। ঘণ্টায় ৪০,১৪০ কিলোমিটার গতিতে ছুটে আসছে এটি। এর দু’‌দিন পরেই পৃথিবীর কাছে এসে পৌঁছবে দ্বিতীয় গ্রহাণুটি। সোমবার বিকেল ৩.৪০ মিনিটে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছাকাছি আসবে এটি। অ্যাস্টেরয়েড ২০১৩ এক্সএ২২ নামে গ্রহাণুটি পৃথিবী থেকে ২.৯৩ মিলিয়ন কিলোমিটার দূর দিয়ে যাবে। এর ব্যাসার্ধ ১৬০ মিটার। ঘণ্টায় ২৪,০৫০ কিলোমিটার বেগে পৃথিবীর দিকে ছুটে আসছে এটি। এরপর আগামী ২৪ জুন সকাল ৬.৪৪ মিনিটে পৃথিবীর গা ঘেঁসে ছুটে যাবে অ্যাস্টেরয়েড ২০১০ এনওয়াই৬৫ নামে তৃতীয় গ্রহাণুটি। এটি পৃথিবী থেকে ৩.৭৬ মিলিয়ন দূর দিয়ে যাবে। এর ব্যাসার্ধ ৩১০ মিটার। পৃথিবীর দিকে ঘণ্টায় ৪৬,৪০০ কিলোমিটার বেগে ছুটে আসছে এই গ্রহাণু। এগুলোর মধ্যে থেকে একটিও পৃথিবীতে আঘাত হানলে মানবসভ্যতা বড় ক্ষতির সম্মুখীন হবে। তবে সেই আশঙ্কা অনেকটাই কম। এমনটাই মত বিজ্ঞানীদের।

জনপ্রিয়

Back To Top