আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ছোট থেকে সবাই জেনে এসেছি, পৃথিবীর একমাত্র উপগ্রহ চাঁদ। যা কিনা সাড়ে ২৯দিনে একবার পৃথিবীকে ঘুরে আসে। তার দৌলতেই মূলত জোয়ার–ভাটা হয়। সময় যত এগিয়েছে চাঁদকে নিয়ে কৌতূহল যেন আরও বেড়ে গিয়েছে। এই তো খুব শীঘ্রই চাঁদের মাটিতে আরও একটি মহাকাশযান পাঠাতে চলেছে ভারত। কিন্তু জানেন কী?‌ এই চাঁদই একদিন পৃথিবী থেকে অনেকটা দূরে সরে যাবে?‌ হ্যাঁ, শুনতে অবাক লাগলেও ভবিষ্যতে এমনটা হবেই। তখন আর পৃথিবীর আকর্ষণে এই গ্রহের চারিদিকে ঘুরবে না তার একমাত্র উপগ্রহটি। বরং সে তৈরি করে নেবে নিজস্ব কক্ষপথ, যা হবে সূর্যকে কেন্দ্র করে। তখন আর পৃথিবীর উপগ্রহ নয়, প্লুনেট হিসেবে পরিচিত হবে চাঁদ।
কিন্তু কী এই প্লুনেট?‌ আসলে বহুদিন ধরেই মহাকাশবিজ্ঞানীরা এই বিষয়টি নিয়ে পরীক্ষা–নিরিক্ষা করছিলেন। অনেক সময় তাঁরা দেখেছেন, বড় কোনও গ্রহের চারপাশে ঘুরতে ঘুরতে আচমকাই তার কোনও উপগ্রহ কক্ষচ্যুত হয়েছে। গ্রহটি যে নক্ষত্রের চারপাশে ঘুরছে, তার চারিদিকেই নতুন কক্ষপথে ঘুরতে শুরু করেছে। প্রায় ৪৮ শতাংশ ক্ষেত্রেই এটা দেখা গিয়েছে। আর সেক্ষেত্রে ওই নতুন উপগ্রহগুলির নাম রাখা হয় প্লুনেট। অর্থাৎ না প্লানেট, না মুন। 
বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, প্রতি বছর ৪ সেন্টিমিটার করে পৃথিবী থেকে দূরে সরে যাচ্ছে চাঁদ। এই গতিতে হয়ত ৫ বিলিয়ন বছর পর সেটি আর পৃথিবীকে প্রদক্ষিণ করবে না। তার বদলে সূর্যের চারিদিকে নিজস্ব কক্ষপথে ঘুরে বেড়াবে। তবে অত বছর পর সৌরজগতের টিকে থাকাই প্রশ্নের মুখে থাকবে, কারণ ততদিনে সূর্যের বয়সও অনেকটাই বেড়ে যাবে। বলতে গেলে ‘‌বুড়ো’ নক্ষত্রে পরিণত হবে সূর্য।‌    

জনপ্রিয়

Back To Top