আজকাল ওয়েবডেস্ক: রাজ্যে সদ্য শেষ হয়েছে বিধানসভা নির্বাচন। আর ভোটের ফল প্রকাশ হতেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক অশান্তি। হিংসা কবলিত এলাকা পরিদর্শনে ইতিমধ্যেই রাজ্য এসে ঘুরে গেছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের বিশেষ দল। সেই দলের প্রতিনিধিরা রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের সঙ্গে দেখাও করেছেন। ইতিমধ্যেই রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় রাজ্যের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে ডেকে পাঠিয়ে সমস্ত খোঁজখবর নিয়েছেন। কিন্তু মুখ্যসচিবের সঙ্গে আলোচনায় খুশি নন তিনি। রাজ্য সরকারের তরফে নাকি তাঁকে সমস্তটা জানানো হচ্ছে না বলে জানালেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। আর এতেই ক্রমশ বাড়ছে রাজ্য–রাজ্যপাল সংঘাত। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় বলেন, ‘রাজ্যে যেভাবে রাজনৈতিক হিংসা বাড়ছে তাতে তিনি রীতিমতো উদ্বিগ্ন। রাজ্য সরকার হিংসা বন্ধ করতে সঠিক দায়িত্ব পালন করছে না। হিংসা কবলিত এলাকায় আমি নিজে যাব। রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান হিসাবে আমার কর্তব্য বাংলার মানুষকে শান্তিতে রাখা। গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করতে গিয়ে আজ প্রাণ হারাতে হচ্ছে মানুষকে। রক্ত ঝড়ছে বাংলায়। অথচ প্রশাসন তা থামাতে তৎপর হচ্ছে না। আমি এখনও আবেদন করছি রাজ্য সরকার যেন সংবিধান মেনে কাজ করতে উদ্যোগী হয়। রাজনৈতিক হিংসা বন্ধ করতে সঠিক পদক্ষেপ করুক রাজ্য।’ যদিও রাজ্যের পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম রাজ্যপালের কথা মানতে নারাজ। ফিরহাদ হাকিম বলেন, রাজ্যপাল নিজের ভূমিকা সঠিক ভাবে পালন করছেন না। বিজেপির হয়ে কথা বলছেন। হিংসা বন্ধে প্রশাসন কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে। আর হিংসা বিদ্বেষ ছড়াচ্ছে বিজেপি। কোভিড পরিস্থিতিতেও বিজেপি হিংসা ছড়াচ্ছে। আমরা মানুষের স্বার্থে কোভিড মোকাবিলায় কাজ করে যাচ্ছি।’

জনপ্রিয়

Back To Top