আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ আজ বিশ্ব রেডিও দিবস। বেতার তরঙ্গে সুদূর প্রান্তকে জোড়ার এই গণমাধ্যমের আবিষ্কারের সঙ্গে অনেক বিজ্ঞানীর নাম জড়িয়ে থাকলেও রেডিওর আবিষ্কর্তা হিসেবে ইতালীয় বিজ্ঞানী গুয়েলমো মার্কনির নামই সর্বাগ্রে নেওয়া হয়। কারণ, বিংশ শতকে তিনিই প্রথম দূরের সংযোগকে বেতার তরঙ্গে জুড়েছিলেন। 
রেডিওকে স্যালুট জানাতে ২০১১ সালে ১৩ ফেব্রুয়ারিকে বিশ্ব রেডিও দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয় ইউনেস্কো। এই দিনটিকে বাছা হয়েছিল কারণ, ১৯৪৬ সালে এই দিনেই রাষ্ট্রপুঞ্জ রেডিও প্রথম আন্তর্জাতিক সম্প্রচার করেছিল। স্পেনের রেডিও অ্যাকাডেমি ২০১০ সালে প্রথম ১৩ ফেব্রুয়ারিকে বিশ্ব রেডিও দিবস হিসেবে উদযাপন করার পরিকল্পনা করেছিল। তারপর ২০১১ সালে ইউনেস্কো ১৩ ফেব্রুয়ারিকে বিশ্ব রেডিও দিবস হিসেবে স্বীকৃতি দেয়। 
এবছর বিশ্ব রেডিও দিবসের মূল থিম রেডিও এবং স্পোর্টস। রেডিওয় খেলার সম্প্রচার, সেই সম্প্রচারে পুরুষ–মহিলা ঘোষকদের সমানাধিকার এবং খেলার মাধ্যমে শান্তি ও উন্নয়ন সম্প্রচারই এবারের আলোচনার বিষয়। কীভাবে একজন মহিলা রেডিও ঘোষক নিজের দক্ষতায় খেলা সম্পর্কে মতামত দিতে পারেন, সেটাই এবছর তুলে ধরেছে ইউনেস্কো। আলোচনায় উঠে এসেছে— রেডিও ঘোষক হিসেবে মহিলাদের সামনের সারিতে আনা, স্থানীয় স্কুল, কলেজের খেলার প্রচার, খেলার ঘোষণায় মহিলাদের দক্ষতা সহ বিভিন্ন বিষয়।  
 ‌‌‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top