আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ভিক্ষা করাটা কারও হয়ত নেহাতই গ্রাসাচ্ছদনের জন্য। কিন্তু অনেকেই যে এটাকে পেশা হিসেবে নিয়ে নিয়েছেন তার প্রমাণ আবারও মিলল। এবার ঘটনাস্থল পুডুচেরি। পুডুচেরির একটি মন্দির লাগোয়া ফুটপাথের বাসিন্দা পর্বতাম নামে ৭০ বছরের ওই বৃদ্ধার কাছে শুধু নগদেই মিলেছে ১৫০০০ টাকা। এছাড়া পুলিস তাঁর ব্যাগে আধার কার্ড এবং ব্যাঙ্কের পাসবই খুঁজে পায়। ব্যাঙ্কে খোঁজ নিয়ে পুলিস জানতে পারে ওই ভিখারিণীর নামে ব্যাঙ্কে দুলক্ষ টাকা জমা আছে। সম্প্রতি মন্দির কর্তৃপক্ষ লাগোয়া ফুটপাথ চত্বরে সাফাই অভিযান চালাচ্ছিল। কিন্তু পর্বতাম ফুটপাথে তাঁর ঝুপড়ি থেকে নড়তে অস্বীকার করেন। উপায় না দেখে পুলিসে খবর দেয় মন্দির কর্তৃপক্ষ। এরপরই পুলিস গিয়ে পর্বতামের ঝুপড়িতে তল্লাশি চালিয়ে ওই অর্থ উদ্ধার করে। পুলিসকে জেরায় পর্বতাম বলেছেন, তিনি শুধু ভিক্ষা করেই ওই বিপুল অর্থ সংগ্রহ করেছেন। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতে পর্বতামকে একটি বৃদ্ধাবাসে ভর্তি করেছে পুলিস। তামিলনাড়ুর কাল্লাকুরিচিতে তাঁর পরিবারকেও খবর পাঠানো হয়েছে।
কয়েক মাস আগেই পথ দুর্ঘটনায় মৃত, মুম্বইয়ের ধারাভি অঞ্চলের বাসিন্দা এক ভিখারির গচ্ছিত সম্পত্তির পরিমাণ দেখে আঁতকে উঠেছিলেন পুলিস অফিসাররা। ব্যাঙ্কে জমানো তাঁর কয়েক লক্ষ টাকা, আধার, ভোটার কার্ড ছাড়া বস্তির ঝুপড়িতে তাঁর জমানো কয়েন গুণতেই সারা দিন লেগেছিল পুলিস অফিসারদের। ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top