আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিতর্কে খাদ্য সরবরাহকারী সংস্থা ‘‌সুইগি’। চেন্নাইয়ের এক বাসিন্দা সুইগিতে খাবার অর্ডার করেছিলেন। আর সেই খাবার কি না ডেলিভারি বয় নিয়ে আসছে সুদূর রাজস্থান থেকে!‌ শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে ভার্গভ রাজনের সঙ্গে। সম্প্রতি সুইগি থেকে খাবার অর্ডার করেছিলেন তিনি। কিন্তু সুইগির অ্যাপে কোনও একটি গোলমালের কারণে খাবারের অর্ডারটি চলে যায় রাজস্থানে। রাজন এরপর অ্যাপে দেখতে পান তাঁর খাবার আসতে ১২ মিনিট সময় লাগবে। কিন্তু সেটি আসছে সেই রাজস্থান থেকে। এরপরই অবাক রাজন সেটির স্ক্রিনশট নিয়ে টুইটারে পোস্ট করেন। সঙ্গে লেখেন, ‘‌কী ব্যাপার! আপনি কী চালাচ্ছেন?‌‌‌’‌ আর তার সেই পোস্ট দেখে অবাক হন নেটিজেনরাও। ‌একের পর এক কমেন্ট আসতে থাকে। কেউ লেখেন, ‘‌অতদূর থেকে মাত্র ১৩৮ টাকায় খাবার আসা কীভাবে সম্ভব?‌’ কেউ আবার লেখেন, ‘মাত্র ১২ মিনিটে অতদূর থেকে চলে আসবেন!‌ এলন মাস্ক আপনার ঠিকানা জানতে চাইছেন।‌’ কেউ আবার লেখেন, ‘‌আলোর থেকেও গতিবেগ বেশি।’ এছাড়াও আরও অনেক মজার মজার মন্তব্য ভেসে আসতে থেকে। যদিও পরে সুইগির তরফ থেকে টুইট করে জানানো হয়, ‘‌কিছু প্রযুক্তিগত সমস্যার কারণে এরকমটা ঘটেছে। আমাদের জানানোর জন্য ধন্যবাদ। খুব শিগগিরি এই সমস্যার সমাধান করা হবে।’  যদিও টুইটের শুরুতে ওই ডেলিভারি বয়কে পৌরাণিক কাহিনীর এক দেবতা ‘‌লোকি’–র সঙ্গে তুলনা করে মজা করতেও ভোলেনি সংস্থাটি।‌‌‌‌    ‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top